Latest Post




নিউজ ডেস্ক : নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে চেঙ্গাইন এলাকায় সাইফুল ইসলাম (৪৮) নামে এক ব্যবসায়ীকে কাঁচপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোশারফ ওমর সংঘবদ্ধ একটি সন্ত্রাসী দল নিয়ে মারপিট করে অপহরণ করে নেয়ার চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় গতকাল শনিবার দুপুর ১টার দিকে অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যান মোশারফ ওমরকে গ্রেফতারের দাবিতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কাঁচপুর বাস স্ট্যান্ডে এলাকার নারী-পুরুষ ও ব্যবসায়ীরা মিলে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে। 

মানববন্ধন চলাকালে স্থানীয় ব্যবসায়ীরা বক্তব্যে বলেন, উপজেলার কাঁচপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোশারফ ওমর একজন সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ, দখলবাজ ও মাদক ব্যবসায়ী। গত মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কাঁচপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোশারফ ওমরের নেতৃতে একদল সন্ত্রাসীরা কাঁচপুর উত্তরপাড়া গ্রামের মৃত হাজি আব্দুল মান্নানের ছেলে সাইফুল ইসলামকে তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ঢুকে মারপিট করে আহত করে এবং তাকে অপহরণ করে নেয়ার উদ্দেশে জোর পূর্বক একটি গাড়িতে তুলে নেয়ার চেষ্টা করারও অভিযোগ। পরে ওই ঘটনায় ১২ অক্টোবর মঙ্গলবার রাতে ব্যবসায়ী সাইফুল ইসলাম নিজে বাদি হয়ে চেয়ারম্যান মোশারফ ওমর (৫০) ও মো: কবির (৫২) সহ অজ্ঞাত ৩-৪জনকে আসামী করে সোনারগাঁও থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করে। পুলিশের কাছে অভিযোগ করার ৪দিন অতিবাহিত হলেও থানা পুলিশ কোন ব্যবস্থা না নেয়ায় জীবনের নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছে। এদিকে ব্যবসায়ী সাইফুল ইসলাম জানান, ইউপি চেয়ারম্যান মোশারফ ওমরের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করার পর থেকেই গাড়ি নিয়ে তার সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসী দল নিয়ে মোহরা দিচ্ছে। চেয়ারম্যান মোশারফ ওমর ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীর ভয়ে পরিবারের সবাইকে নিয়ে জীবনের নিরাপত্তাহীনতার দিন যাপন করছে। 

এ ব্যাপারে সোনারগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ মো. হাফিজুর রহমান জানান, আমি কাঁচপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোশারফ ওমরের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি, যা তদন্ত চলছে, দ্রুত ব্যবস্থা নিবো।


                                                                        



নিউজ ডেস্ক : বন্দর উপজেলা মদনপুর  ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের নৌকার মনোনিত, প্রার্থী  বর্তমান চেয়ারম্যান আলহাজ্ব গাজী এম এ সালাম কে  সমর্থন উপলক্ষে মদনপুর ইউপি স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আক্তার হোসেন নেতৃত্বে বিজয় মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

 মদনপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও আ’লীগের মনোনীত পূণরায় চেয়ারম্যান প্রার্থী এম এ সালামকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়ে আনুষ্ঠানিক সমর্থন জানিয়েছেন স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতৃবৃন্দ । শুক্রবার সন্থ্যায় মদনপুর এলাকায় গাজী এম এ সালামকে সমর্থণ দিতে আ’লীগ,যুবলীগ,ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, কৃষক লীগ, শ্রমিক লীগ সহ, সহযোগী সংগঠনের আয়োজিত দোয়া অনুষ্ঠানেে এ শুভেচ্ছা জানানো হয়।


এ সময় উপস্থিত ছিলেন, বন্দর উপজেলা সিনিয়র সহ সভাপতি হাসানুজ্জামান, বন্দর উপজেলা সাধারন সম্পাদক আঃ আলিম, মদনপুর ইউপি স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আক্তার হোসেন, ধামগড় ইউপি  স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোঃ সানোয়ার হোসেন বিপ্লব,মদনপুর ইউপি স্বেচ্ছাসেবক লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি আজিজুল ইসলাম তনময়,মদনপুর ইউপি স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল, কালাম সকল সহ স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন । 





নিউজ ডেস্ক : বন্দর উপজেলা মদনপুর  ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের নৌকার মনোনিত, প্রার্থী  বর্তমান চেয়ারম্যান আলহাজ্ব গাজী এম এ সালাম কে  সমর্থন উপলক্ষে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল  অনুষ্ঠিত হয়েছে। 


শুক্রবার ১৫ ই অক্টোবর বাদ মাগরিবের নামাজ শেষে মদনপুর ইউনিয়ন বাসস্ট্যান্ড এলাকায় আওয়ামী লীগের নৌকার মনোনিত প্রার্থী ,বর্তমান চেয়ারম্যান আলহাজ্ব গাজী এম এ সালাম কে  সমর্থন উপলক্ষে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল  অনুষ্ঠিত হয়।


বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী ও মদনপুর ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান আলহাজ্ব গাজী এম এ সালাম বলেছেন,প্রথমেই কৃতজ্ঞতা  প্রকাশ করি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র প্রতি তিনি আমাকে সম্মান দিয়েছেন।  আমাকে নৌকার বৈঠা হাতে তুলে দিয়েছেন। আমি বলতে চাই এটা আমার বড় পাওয়া। এই মদনপুর ইউনিয়ন আ’লীগ এর ঘাঁটি।  যুগের পর যুগ এখানকার মানুষ বঙ্গবন্ধুকে ভালোবেসে আ’লীগের সাথে জড়িত।  আজকে এখানে আমারা সবাই একতাবদ্ধ রয়েছি।  আমাদের এই একানিষ্ঠ কাজে জয় এবার সুনিশ্চিত।  আমরা সবাই যদি এক থাকতে পারি তাহলে বিপুল ভোটে জয়লাভ করব। 


তিনি আরো বলেন,  আমরা সবাই একই দলের রাজনীতি করি। যদি এখানে নৌকার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র হয় তাহলে দাঁতভাঙা জবাব দিবে মদনপুর আ’লীগ। আমার বড় আরজু রহমান ভূইয়া তিনিও নৌকা চেয়েছেন কিন্তু দল আমাকে দিয়েছে। আমি উনাকেও সম্মান করি।  তিনি যেন আমার সাথে কাজ করেন। নৌকার পক্ষে কাজ করেন।


অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন, মদনপুর আ’লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মহিত ভূঁইয়া।এসময় উপস্তিত ছিলেন,  বন্দর থানা আ’লীগ নেতা হাবিবুর রহমান, নাজিম উদ্দিন, থানা যুবলীগ নেতা সাইদুল ইসলাম জুয়েল, আ ‘লীগ নেতা আমান মিয়া, যুবলীগ নেতা রফিকুল ইসলাম, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি নাজমুল হাসান আরিফ, সহ-সভাপতি শেখ কামাল,জেলা পরিষদ সদস্য আরিফুল ইসলাম আলিনুর,সাইফুল ইসলাম পলাশ সভাপতি বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগ, মদনপুর ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোঃ আক্তার হোসেন,মদনপুর ইউনিয়ন শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক  আল মামুন,  যুবলীগ নেতা শাহআলম, গাজী রাসেল,৮ নং ও ওয়ার্ডের মেম্বার  পদপ্রার্থী মামুনুর রশিদ।সহ অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।


 




 নিউজ ডেস্ক : নারায়ণগঞ্জ বন্দর উপজেলার ধামগড় ইউনিয়নের নির্বাচনে পুনরায় আবারো ধামগড়ে ফয়েজুর রহমান ফয়েজ মোল্লা কে মেম্বার হিসেবে দেখতে চায় ২ নং ওয়ার্ডের সর্বস্তরের জনগন। জনগণ চায় উন্নয়ন। আর সেই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রেখেছেন ধামগড় ইউনিয়ন ২নং ওয়ার্ডের একজন পরিশ্রমি  ইউপি সদস্য,ফয়েজুর  রহমান ফয়েজ, তিনি এলাকার উন্নয়নে নির্বাচিত হবার পর থেকে রাস্তাঘাট উন্নয়নে রেখেছেন বিরাট ভূমিকা এমনকি নিজস্ব অর্থায়নেও রাস্তাঘাট তৈরি করেছেন। নাগরিকত্ব সুবিধা সুনিশ্চিত করতে জন্ম নিবন্ধন পত্র, মৃত্যু সার্টিফিকেট, ওয়ারিশ সার্টিফিকেট, বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা সহ সর্বপ্রকার সুবিধা জনগণকে যথোপযুক্ত ভাবে দিতে চেষ্টা করেছেন। করোনাকালীন সময় যোদ্ধা হয়ে মানুষের পাশে ছিলেন। 


ইউপি সদস্য  ফয়েজুর রহমান  সম্পর্কে ধামগড় ২নং ওয়ার্ডের জনগণ বলেন,   ফয়েজ মেম্বার একজন সত নিষ্ঠাবান ব্যাক্তি, মানুষ গড়ার কারিগড় আমাদের ওয়ার্ডে রাস্তাঘাট উন্নয়নসহ যাবতীয় সুবিধা তিনি বিগত সময়ে দিয়েছেন। এলাকার বিচার সালিশি সুষ্ঠুভাবে করেছেন। যেকোনো বিপদে আমরা তাকে পাশে পেয়েছি। তার মত একজন পরিশ্রমি  জনদরদি ইউপি সদস্য আমরা পুনরায় নির্বাচিত করতে চাই। আমাদের ধামগড় ২ নং ওয়ার্ডটিকে উন্নয়নের রোল মডেলে পরিণত করতে তার মতো একজন সুদক্ষ ইউপি সদস্য  আমরা এই ওয়ার্ডে আবারো  নির্বাচিত করতে চাই। তাই আবারো উন্নয়ন  আবারো ফয়েজুর রহমান ফয়েজ মেম্বার । 

আসন্ন নির্বাচন সম্পর্কে ফয়েজুর রহমান ফয়েজের  কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, পুনরায় আবারও নির্বাচিত হলে সর্বপ্রথম আমার ওয়ার্ডের বাজেট বৃদ্ধির জন্য আবেদন করব। যেন জনগণ তাদের প্রাপ্য অধিকার সুনিশ্চিত ভাবে পায়। আমি আমার নির্বাচনী ইশতেহার অনুযায়ী মানুষের মাঝে সেবা দিয়েছি। যে সকল কাজ অসমাপ্ত রয়েছে তা সমাপ্ত করার লক্ষ্যে আমি আবার পুনরায় নির্বাচিত হতে চাই। আমি কথা দিচ্ছি, আমি নির্বাচিত হলে আমার ২নং ওয়ার্ড টিকে একটি মডেল ওয়ার্ডে রূপান্তরিত করব। যে সকল রাস্তাগুলোতে পানি ওঠে ওই রাস্তাগুলোকে উঁচু করে পিচ ঢালাই করার ব্যবস্থা নেব। আমি নির্বাচিত হবার পর মাদক, ইভটিজিং, কিশোর গ্যাং নির্মূলে সর্বসময় কাজ করেছি। নির্বাচিত হলে এ দিকে আরো বেশি সুনজর দেব। ইউনিয়ন পরিষদের বাজেট অনুযায়ী স্কুল-কলেজের উন্নয়ন সহ একটি পরিচ্ছন্ন ওয়ার্ড গড়ে তুলবো। আসন্ন নির্বাচনে আমি আমার ওয়ার্ড বাসীর কাছে জানাই আমার নির্বাচনী সালাম। আমি সকলের দোয়া প্রার্থী। ইনশাআল্লাহ জনগণের দোয়া ও ভালবাসায় আমি শতভাগ সুনিশ্চিত পুনরায় নির্বাচিত হবো ইনশাল্লাহ। 





নিউজ ডেস্ক : নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁয়ে শ্রী শ্রী গৌর নিতাই আখড়া মন্দিরে শারদীয় দূর্গা পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করেছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জায়েদুল আলম পিপিএম( বার)। 



এসময় তার সাথে আরও উপস্থিতি ছিলেন, সোনারগাঁ থানার অফিসার ইনচার্জ হাফিজুর রহমান,সোনারগাঁ থানার তদন্ত অফিসার শফিকুল ইসলাম, এস আই রাকিবসহ সোনারগাঁ পূজা উদৎযাপন কমিটির সভাপতি লোকনাথ দত্ত।



পরির্দশন শেষে পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম বলেন, হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধমীয় উৎসব শারদীয় দূর্গা পূজা এ উপলক্ষে সকলকে জানাই আন্তরিক শুভেচ্ছা। ধর্ম ধর্ম যার যার উৎসব সবার। বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের জন্য সরকারি বিধি নিদের্শনাগুলো মেনে প্রতিটি পূজা মন্ডপে পালন করা হচ্ছে শারদীয় উৎসব। পূজা উপলক্ষে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীরা পূজা মন্ডপ গুলোতে টহল দিচ্ছে ও সার্বিক নিরাপত্তার ব্যাবস্থা করা হয়েছে সেই সাথে সমাজ কে ইভটিজিং ও মাদক মুক্ত গড়ে তোলার জন্য প্রতিটি থানায় কাজ করে যাচ্ছে পুলিশ। তাই আপনারা পুলিশ কে সঠিক তথ্য দিয়ে সহায়তা করুন।



এর আগে নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ সভাপতি ও মোগড়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হাজী শাহ মোহাম্মদ সোহাগ রনির পক্ষ থেকে সজল চন্দ্রর নেতৃত্বে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম কে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন অভিরাজ সেন, অমিত রায়, সংকর রাজ, নারায়ণ কর্মকার, শ্যামল ঘোষ প্রমুখ।




নিউজ ডেস্ক  ঃ নারায়ণগঞ্জ বন্দর উপজেলা মদনপুর ইউনিয়ন জাতীয়  শ্রমিক লীগের ৫২ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী  উপলক্ষে  আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

১২ ই অক্টোবর মঙ্গলবার বাদ আসর মাগরিবের নামাজ  শেষে, কেওঢালা এলাকায়, জাতীয় শ্রমিক লীগের ৫২ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী  উপলক্ষে  আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। 

সিনিয়র সহ সভাপতি মদনপুর ইউনিয়ন জাতীয় শ্রমিক লীগ লিয়ন হোসাইন  এর সভাপতিত্বে, 

প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, মদনপুর ইউনিয়নের সুযোগ্য চেয়ারম্যান, আলহাজ্ব গাজী এম এ সালাম।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের সদস্য ও ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ্ব আলিনুর, মদনপুর ইউনিয়ন বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোঃ আক্তার হোসেন,  


প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন  মুজাম্মেল  হক,সভাপতি  জাতীয় শ্রমিক লীগ বন্দর উপজেলা। 

 উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন , রাফিয়ান আহম্মেদ সাধারন সম্পাদক জাতীয় শ্রমিক লীগ  বন্দর উপজেলা। 

 

 এসময় উপস্থিত ছিলেন,আলী হোসেন, সহ সভাপতি মদনপুর ইউপি জাতীয় শ্রমিক লীগ, 

 মোঃআল  মামুন  সাধারন সম্পাদক মদনপুর ইউনিয়ন  জাতীয় শ্রমিক লীগ, যুবলীগ নেতা  গাজী শাহআলম, জিহাদ ভুইয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক জাতীয় শ্রমিক লীগ, মদনপুর ইউনিয়ন, কামাল হোসেন,যুগ্ন সম্পাদক জাতীয় শ্রমিকলীগ,মদনপুর ইউপি,মোঃ জব্বার  যুগ্নসাধারণ সম্পাদক শ্রমিক লীগ মদনপুর ইউপি, 

 কার্যকরী সদস্য, মামুন সিকদার, আনোয়ার হোসেন, রুকন মিয়া, সোহেল রানা,লিল্প ও সাহিত্য বিষয়ক সম্পাদক, সেলিম শিল্প বিষয়ক সম্পাদক সহ আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

 

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget