বন্দরে মালিবাগ "রৌশন আনোয়ার ফাউন্ডেশন" উদ্যেগে পাঁচশত পরিবারের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরন

বন্দরে মালিবাগ "রৌশন আনোয়ার ফাউন্ডেশন" উদ্যেগে
পাঁচশত পরিবারের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরন

বন্দর প্রতিনিধিঃ--বিখ্যাত গায়ক সেই ভূপেন হাজারীর কন্ঠে- মানুষ মানুষের জন্য-জীবন জীবনের জন্য- একটু সহানুভূতি-মানুষ কি পেতে পারে না ও বন্ধু-মানুষ মানুষের জন্য---? বিশ্বময় মহামারির অভিশপ্ত নাম কোবিড-১৯। যার বৈজ্ঞানিক নাম করোনা ভাইরাস ভাইরাস জনিত মহামারীর কারণে জাতির এই ক্রান্তিলগ্নে বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার আহবানে সাড়া দিয়ে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সারাদেশ লকডাউন আতংকে দিশেহারা। যেখানে কর্মহীন হয়ে মানবেতর জীবন কাটাচ্ছে অসহায় দিনমজুর। কার্যত লকডাউন থাকার কারণে কর্মহীন হয়ে পড়া নিম্নবিত্ত ও হতদরিদ্র পাঁচ শতাধিক পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা বিতরণ করেছেন নারায়ণগঞ্জ বন্দর উপজেলার মুছাপুর ইউপির মালিবাগ এলাকার বিশিষ্ট দানবীর সমাজ সেবক "রৌশন আনোয়ার ফাউন্ডেশন " এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ আনোয়ার হোসেন।
সমাজের নিম্ন আয়ের মানুষের সাহায্যের পাশাপাশি এবার সমাজের মধ্যবিত্ত পরিবারের মাঝে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে "রৌশন আনোয়ার ফাউন্ডেশনের" প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ আনোয়ার হোসেন ও পরিবারবর্গ। ফাউন্ডেশনের পরিচালাকের দায়িত্ব পালন করেন তারই পুত্র প্রফেসর আকবর মোঃ শওকত। মূলত "রৌশন আনোয়ার ফাউন্ডেশ"একটি স্বেচ্ছাসেবী সমাজ উন্নয়নমূলক সংগঠন। তাই আজ ২২ই মে ২০২০ পবিত্র শুক্রবার ২৮ই রমজান বন্দর উপজেলার মুছাপুর ইউপির মালিবাগ এলাকায় "রৌশন আনোয়ার ফাউন্ডেশন" এর কর্নধার বিশিষ্ট দানবীর ও সমাজ সেবক আনোয়ার হোসেন তার বাস ভবনে পাঁচশত মধ্যবিত্ত ও অসহায় পরিবারের মাঝে ঈদ সামগ্রী প্যাকেট উপহার সরুপ বিতরণ করেন। যা করোনা ভাইরাস সংক্রমনরোধে নিজ দায়িত্বে প্রতিটি ঘরে ঘরে ঈদ উপহার পৌছে দেন। যার প্রতিটি প্যাকেটে পঁচিশ কেজী চাল একটি শাড়ি ও একটি লুঙ্গি।
এছাড়া ধামগড় ইউনিয়ন ৫নং ওয়ার্ডের অসহায় দুঃস্থ্য পরিবারের বাড়ি বাড়ি ঈদ উপহার সামগ্রীর প্যাকেট পৌছিয়ে দেন। দুই ইউনিয়নের পাঁচ শতাধিক পরিবারে মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণের জন্য স্থানীয় নেতৃবৃন্দদের নিয়ে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে বিশ্ববাসীর শান্তি ও মঙ্গল কামনায় মিলাদ ও দোয়ার আয়োজন করেন।উপহার সামগ্রীর প্রতিটি প্যাকেটে ছিল পঁচিশ কেজী চাল,একটি শাড়ি ও একটি লুঙ্গি। এছাড়া পূর্বেও প্রথম ধামে একশত পরিবারকে ত্রিশ কেজী করে চাল বিতরন করছেন। পরবর্তী দ্বিতীয় ধাপে তিনশত পরিবারকে গরু জবাই করে গোশত বিতরন করেছেন। পাশাপাশি ফাউন্ডেশনের পক্ষে দরিদ্র পরিবারের অনেক সদস্যকেই অটোরিক্সা ও ভ্যান কিনে দিয়েছেন। যাতে করে নিজেরা কাজ করে স্বাবলম্বী জীবন যাপন করতে পারে।
উপহার সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আলহাজ্ব মোঃ আব্দুর রশিদ মাষ্টার,আলহাজ্ব রিয়াজ উদ্দিন রিয়াজ,মাওলানা মোঃ ইব্রাহিম, আজিজুল প্রধান,আক্তার হোসেন,মোকলেছুর রহমান, নজরুল,মোক্তার,ওসমান গনি সহ বিভিন্ন সমাজ ভিত্তিক মসজিদের ঈমামগন।
ঈদ সামগ্রী বিতরনের সময় "রৌশন আনোয়ার ফাউন্ডেশন" এর চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আনোয়ার হোসেন বলেন, সেই ছোট্ট বেলা থেকেই আমার লক্ষ্য ও উদ্দেশো ছিল যদি কখনো আল্লাহপাক আমাকে দান করার ক্ষমতা দেন তাহলে চুপি চুপি মানুষের ঘরে গিয়ে দান করে যাব। তাই মহান আল্লাহপাক আমার সেই আশা পূরন করেছে। আমার পাঁচ ছেলে দুই মেয়ে। বড় ছেলে ইংল্যান্ড থাকে। দ্বিতীয় ছেলে আকবর মোঃ শওকত কলেজের প্রভাষক,দুই ছেলে জাপান,দুই মেয়ে জার্মান। মূলত আমি আমার পরিবারের সদস্যগন রেমিট্যান্স যোদ্ধা। তাই অনেকেই মৃত্যুর পরে তার ওয়ারিশান পিতা-মাতার নামে ফাউন্ডেশন করে। আর আমি সকলের দোয়ায় জীবিত থাকাকালীন রৌশন আনোয়ার ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে জনকল্যানে সেবা করতে চাই। তারই ধারাবাহিকতায় আমার এলাকার যেসব মসজিদ মাদ্রাসা এতিমখানা আছে সেইসব প্রতিষ্ঠানকে নিয়মিত সাহায্যে সহযোগীতা করে আসছি। এমনকি সোনারগাঁ পেরাব এলাকা ও বারদীতে মসজিদ মাদ্রাসা স্থাপন করে দিয়েছি। দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে দেশবাসী তেমন ভালো নেই। মানুষের আয় রোজগারের পথটুকুও বন্দ। তাই আমার ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা আপনাদের জন্য ঈদ সামগ্রী উপহার। আপনাদের নিকট আমার অনুরোধ পরিবার নিয়ে ঘরে থাকুন,সুস্থ থাকুন। সেই সাথে দোয়া করি সকলে ভালো থাকুন।
পাশাপাশি রৌশন আনোয়ার ফাউন্ডেশনের পরিচালক পুত্র আকবর মোঃ শওকত বলেন, আমরা পাঁচ ভাই ও দুই বোন উক্ত ফাউন্ডেশনের কার্যনির্বাহী সদস্য। আমার পিতা যেভাবে আপনাদের পাশে থেকে কাজ করে যাচ্ছেন ভবিষ্যতেও আমরা ভাই বোন মিলেমিশে আপনাদের সেবা দিয়ে যাব।শুধু আমার পিতা-মাতা ও পরিবারের সকল সদস্যদের প্রতি দোয়া চাই। যেন পরিবারের সকলকে মহান আল্লাহপাক সুস্থ্য রাখেন।

Post a Comment

[blogger]

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget