ইউএনও’র হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ের কবল থেকে রক্ষা পেলো ১২ বছরের শিশু




ইউএনও’র হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ের কবল থেকে রক্ষা পেলো ১২ বছরের শিশু

নিউজ ডেস্ক ঃ মহামারী করোনা ভাইরাসের মধ্যেই ১২ বছরের শিশুকে জোর পূর্বক বাল্য বিবাহের আয়োজন করে বাবা মা। সোনারগাঁও রিপোর্টার্স ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও বিজয় টেলিভিশন ও স্বদেশ প্রতিদিন পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি এবং জনতাকন্ঠের প্রকাশক এম.ডি অনিকের মাধ্যমে বাল্য বিবাহের সংবাদ পেয়ে সোনারগাঁও উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা সাইদুল ইসলাম তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নিয়ে বাল্য বিবাহ বন্ধ করে একটি কোমলমতি শিশুকে রক্ষা করেন।
ঘটনার বিবরনে জানা যায়,সোনারগাঁও উপজেলার জামপুর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের পেচাইন মধ্যপাড়া এলাকার কবির হোসেনের ১২ বছরের মেয়ে রত্না আক্তার কলির আজ বাল্য বিবাহ দেয়া হচ্ছে। এমন সংবাদ পেয়ে সাংবাদিক অনিক প্রাথমিকভাবে মেয়ের বাবা মাকে লোক মারফত বিয়ে বন্ধ করার অনুরোধ জানান,পরবর্তীতে বিয়ে বন্ধ না করে করোনার মধ্যেই বড় আয়োজন করে বিয়ে দেয়ার প্রস্তুতি নেয়া হলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইদুল ইসলামকে বিষয়টি অবগত করার সাথে সাথে তিনি স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে বিয়েটি বন্ধ করে মাত্র ১২ বছরের অবুঝ শিশুটিকে বাল্য বিবাহের কবল থেকে রক্ষা করেন।
একটি কোমলমতি শিশুকে বাল্য বিবাহের কবল থেকে রক্ষা করে সুন্দর জীবন উপহার দেয়ার জন্য সোনারগাঁও উপজেলার সুযোগ্য নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব সাইদুল ইসলাম মহোদয়কে সাংবাদিক অনিক এবং স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ সকল সচেতন মহলের পক্ষ থেকে আন্তরিক কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানিয়েছে

Post a Comment

[blogger]

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget