যুবলীগের আইকন মাইনুল হোসেন খান নিখিলের জন্মদিনে মাহাবুব সরকারের শুভেচ্ছা

 



যুবলীগের আইকন মাইনুল হোসেন খান নিখিলের জন্মদিনে মাহাবুব সরকারের শুভেচ্ছা



নিউজ : ডেস্ক ঃ

শুভ জন্মদিন! সফল রাষ্ট্রনায়ক দেশরত্ন শেখ হাসিনার অত্যন্ত বিশ্বস্ত ভ্যানগার্ড, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের বিপ্লবী সাধারণ সম্পাদক, পরিচ্ছন্ন দক্ষ ও সাহসী মানবিক যুবনেতা জনাব আলহাজ্ব মো. মাইনুল হোসেন খান নিখিলের শুভ জন্মদিন উপলক্ষে গতরাতে মুঠোফোনে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য ও ইতালি যুবলীগ নেতা মাহাবুব হোসেন সরকার।


মাহাবুব হোসেন সরকার মুঠোফোনে তাকে বলেন, আসসালামু আলাইকুম প্রিয় নেতা। আপনার শুভ জন্মদিনে আমার ব্যক্তিগত ও ইতালি যুবলীগের পক্ষ থেকে রইলো নিরন্তর ভালোবাসা, দোয়া, শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। মহান আল্লাহ তায়ালার নিকট আপনার সুস্বাস্থ্য এবং দীর্ঘায়ু কামনা করি। এ সময় মুঠোফোনের অপর প্রান্ত থেকে মাইনুল খান লিখিল ইতালি বর্তমান পরিস্থিতিতে যুবলীগ নেতৃবৃন্দের খোঁজখবর নেন। পরে মাহাবুবসহ ইতালি যুবলীগের সকল নেতাকে ধন্যবাদ জানান তিনি।


উল্লেখ্য, যুবলীগের আইকন নিখিল বর্তমান বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে সুষ্ঠু পরিকল্পনা ও জনসচেতনতা বাড়াতে সব ধরনের প্রচারণা ,খাদ্য সহায়তা, সুরক্ষা সামগ্রী উপহার, ফ্রি অ্যাম্বুলেন্স, যুব স্বেচ্ছাসেবকদের মাধ্যমে লাশের দাফন কাফনের ব্যবস্থা করা, ফ্রি মেডিকেল টিম সার্ভিস ,অসহায় কৃষকের ধান কাটার ব্যবস্থায় যুবলীগ নেতাকর্মীদের উৎসাহ প্রদান, সমাজের বিভিন্ন স্তরের ও শ্রেণিপেশার মানুষের জন্য নানাবিধ কর্মসূচি নিয়ে নির্দ্বিধায় ও নিবিষ্ট মনে কাজ করে চলেছেন এবং দেশের মানুষের অশেষ দোয়া ও ভালোবাসায় সিক্ত হয়েছেন।


প্রসঙ্গত এই যুবনেতার রাজনৈতিক প্রজ্ঞা ও আদর্শের সূচনাটি হয়েছিল পিতা মোফাজ্জল হোসেন খানের কাছ থেকে। যিনি ছিলেন মতলব উত্তর চাঁদপুরের নিশ্চিন্তপুর এলাকার সম্ভ্রান্ত খান পরিবারের সদস্য। এই পরিবারটি দেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে। স্বাধীনতাপরবর্তী সময়ে মোফাজ্জল হোসেন খান বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বিভিন্ন দায়িত্বশীল পদ অলঙ্কৃত করেছেন নিষ্ঠার সাথে। সেই ধারাবাহিকতা আজ পর্যন্ত রক্ষা করে যাচ্ছেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মাইনুল হোসেন খান নিখিল, যার রাজনৈতিক আদর্শের গভীরে রয়েছে বাঙালি জাতির স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দর্শন এবং গণতন্ত্রের মুক্তিবাহক দেশরত্ন শেখ হাসিনার নিদর্শন। গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের জন্য প্রতিটি আন্দোলন সংগ্রামে তিনি ছিলেন সফল রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার বিশ্বস্ত সৈনিক। শত পুলিশি নির্যাতন, কারাবরণ দমিয়ে রাখতে পারেনি নিখিলকে। দলের দুর্দিনে যুবলীগের বিভিন্ন দায়িত্বশীল পদে থেকে যুবলীগকে করেছিলেন সুসংগঠিত।


কেন্দ্রীয় যুবলীগের দায়িত্ব প্রাপ্তির পূর্ব থেকে তিনি যুব আন্দোলন এবং যুব উন্নয়ন নিয়ে নানান পরিকল্পনা গ্রহণ করেন। তার ভাষ্যে, “যুবকরা দেশের প্রাণ, উন্নয়নের হাতিয়ার।” আজকের মাইনুল হোসেন খান নিখিলের রাজনৈতিক সফলতার পিছনের ইতিহাস সম্পূর্ণ অন্যরকম। ব্যক্তিজীবনে মাইনুল হোসেন খান নিখিল ১৯৭৯ সালে নিশ্চিন্তপুর উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পাস করেন পরবর্তীতে তিনি বগুড়ার শাহ সুলতান ডিগ্রি কলেজ থেকে বিএসএস ডিগ্রি অর্জন করেন। দুই পুত্র সন্তানের জনক তিনি। ১৯৯৭ সালে ঢাকার নবাবগঞ্জের সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারের কন্যা মমতাজ বেগমের সাথে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। তিনি সাত বোন, পাঁচ ভাইয়ের মধ্যে সেজো।

Post a Comment

[blogger]

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget