August 2021


নিউজ ডেস্ক : সোনারগাঁ পৌরসভার ইছাপাড়া নামক এলাকায় জমির দখল নিতে কলেজ শিক্ষিকার স্বামীর উপর হিংস্র হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে বাহাউল হক পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট ও কলেজের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। এ ঘটনায় সোনারগাঁ থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। পুলিশ এখনও হামলাকারীদের গ্রেফতার করতে পারেনি। 


রবিবার (৩০ আগস্ট) সকাল ১১টায় স্থানীয় ভূমিদস্যু ও সন্ত্রাসী মো. বাচ্চু ও গংদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবিতে সোনারগাঁ পৌরসভার বাহাউল হক পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট ক্যাম্পাসের সামনে শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও স্থানীয় এলাকাবাসী মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করে।


গুরুতর আহত মোহসিনের স্ত্রী বাহাউল হক পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট শিক্ষিকা শারমিন আক্তার জানান, উপজেলার ইছাপাড়া এলাকার মৃত চাঁন মিয়ার মো. বাচ্চু মিয়া ও তার স্ত্রী নাজমা বেগম হিংস্র অমানবিক ভাবে রামদাঁ দিয়ে কুপিয়ে আমার স্বামীকে জখম করে। বর্তমানে আমার স্বামী ঢাকা মেডিকেলে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন। আমি আমার ৭ মাস ও ৮ বছরের দুটি সন্তান নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় আছি। ঘটনার ৫ দিন পরও গ্রেফতার না হওয়ায় স্থানীয় লোকজনের সেল্টারে হামলাকারীরা বিভিন্ন ভাবে হুমকি দিয়ে আসছে।    


বাহাউল হক একাডেমীর প্রধান শিক্ষিকা ফারজানা ইয়াছমিন জানান, আমাদের সহকর্মীর স্বামীর উপর নির্মম ও হিংস্র হামলার বিচার চাই। আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী ও পুলিশ শিক্ষক ও তার পরিবারের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ। আমরা হামলাকারীদের কে দ্রুত গ্রেফতারের দাবি জানাচ্ছি।


এসময় উপস্থিত ছিলেন, আর্ন্তজাতিক মানবাধিকার কর্মী ও সংগঠক জাহাঙ্গীর আলম গোলক, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের সভাপতি সৈয়দা আইরিন সুলতানা, বাহাউল হক সোনারগাঁ ফাউন্ডেশনের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ লায়লা আফরোজ,  বাহাউল হক পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের সুপারিন্টেন্ট্যান্ট শাহজালাল সুমন, সভাইস প্রিন্সিপাল শাহীন মীর প্রমুখ। 


মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই রাকিবুল হাসান উজ্জ্বল জানান, এ ব্যাপারে ২জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। আসামীদের ধরতে পুলিশ তৎপরতা চালাচ্ছে।

 



নিউজ ডেস্ক : ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে বঙ্গবন্ধুকে শ্রদ্ধা জানিয়ে বন্দর উপজেলার ধামগড় ইউনিয়ন শ্রমিক লীগের পক্ষ থেকে অত্র উপজেলার ধামগড় ইউনিয়ন, 


জাঙ্গাল স্ট্যান্ডে ফেস্টুন লাগানো হয়েছিলো, যা গতকাল পর্যন্ত অক্ষত থাকলেও শনিবার রাতে সেই ফেস্টুনটি সহ আরো কয়েকটি ফেস্টুনের প্রায় অর্ধাংশ খুব বাজেভাবে কেটে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা, এমন অভিযোগ করেছেন অত্র ধামগড় ইউনিয়ন শ্রমিক লীগের সভাপতি মোশারফ হোসেন মোল্লা। 

ক্ষোভ প্রকাশ করে মোশারফ মোল্লা জানান, 'জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি সম্বলিত ফেস্টুন যারা কর্তন করার দুঃসাহস দেখিয়েছে তারা স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তি। তারা বঙ্গবন্ধুর শত্রু। তারা দেশ ও জাতির শত্রু। তারা গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। এই হীন কাজ যারা করেছে আমি তাদের প্রতি নিন্দা ও ঘৃণা প্রকাশ করছি'। 

মোশারফ মোল্লা আরো জানান, 'বিষয়টি সম্পর্কে কেন্দ্রীয় শ্রমিক লীগের আইন ও দর কষাকষি বিষয়ক সম্পাদক এবং বন্দর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজিম উদ্দিন প্রধান সহ শ্রমিক লীগের সিনিয়র নেতৃবৃন্দকে অবহিত করেছি। 

তাদের পরামর্শ মোতাবেক কিছুক্ষণ পর বন্দর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হবে। প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানাবো যারা এ ঘৃন্য কাজে জড়িত তাদেরকে খুঁজে বের করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করা হউক।





নিউজ ডেক্সঃ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান,বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব সহ পরিবারের সকল শহীদদের আত্মার শান্তি কামনায় মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেন  জাতীয় পার্টি জামপুর ইউনিয়ন আয়োজিত, জামপুর ইউনিয়ন জাতীয় পার্টি সভাপতি ও আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী  হাজী আশরাফুল ভূইয়া মাকসুদের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সোনারগাঁ থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য,জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ঢাকা বিভাগীয় অতিরিক্ত মহাসচিব লিয়াকত হোসেন খোকা।


প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমপি লিয়াকত হোসেন খোকা বলেন,জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সকল অসমাপ্ত কাজ দ্রুত শেষ করতে তার সুযোগ্য কন্যা আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাত দিন পরিশ্রম করে একটি আধুনিক বাংলাদেশ গড়ার,বিশ্বের দরবারে বাংলাদেশ একদিন মাথা উঁচু করে দাড়াবে,আজকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দৃঢ় নেতৃত্বে অনেক মেঘা প্রকল্পের কাজ হাতে নিয়েছেন  তিনি রাতদিন পরিশ্রম একটি সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মানে কাজ করেন আপনারা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর জন্য দোয়া করবেন  মহান আল্লাহ পাক তাকে দীর্ঘ হায়াত দান করেন।


দোয়া মাহফিলে আরো উপস্থিত ছিলেন,বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের জামপুর ইউনিয়ন সভাপতি আলহাজ্ব হুমায়ুন কবির ভূইয়া,জাতীয় পার্টি নেতা  আবু তালেব চৌধুরী জিসান,ইউনিয়ন জাতীয় পার্টি নেতা হাজী শ্যামল শিকদার,জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাজী জাবেদ রায়হান,সনমান্দি ইউনিয়ন জাতীয় পার্টি সভাপতি আবুল হোসেন,আলী জাহান মেম্বার,আশরাফুল আলম, রোকসানা মেম্বার, সহ নেতৃবৃন্দ ।




নিউজ ডেস্ক : অদ্য ২8 আগষ্ট ২০২১ইং তারিখ রোজ শনিবার “পরিবেশ রক্ষা ও উন্নয়ন সোসাইটি” সোনারগাঁ উপজেলা পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষনা করা হয়।

সভাপতি আজিজুল ইসলাম মুকুল, সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ নূর হোসেন মোল্লা রাজু, মোঃ ফজলুল হক ভ‚ইয়া, মোঃ মোসলে উদ্দিন, মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, মোঃ আক্তার হাবিব, সহ-সভাপতি হাজী মোঃ মোক্তার হোসেন, মোঃ শাহিন, মোঃ মনির হোসেন, মোঃ সোহেল রানা, এইচ এম আসাদুজ্জামান, সাধারণ সম্পাদক মোঃ রফিকুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ আমিনুল ইসলাম, মোঃ গাজী আরিফুল ইসলাম , মোঃ শরিফ সরকার, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মামুন মিয়া, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ফিরোজ শাহ্, মোঃ জাকির হোসেন, মোঃ সোহেল রানা, অর্থ বিষয়ক সম্পাদক, মোঃ মোহসিন, সহ-অর্থ বিষয়ক সম্পাদক মোঃ রানা, সজিব হাসান জয়, দপ্তর সম্পাদক মোঃ মাহমুদুল হাসান, উপ-দপ্তর সম্পাদক মোঃ রাসেল মিয়া, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মোঃ মোক্তার হোসেন, সহ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মোঃ মহিবুল ইসলাম, মোঃ আমির হোসেন, ভিপি পারভেজ, আইন বিষয়ক সম্পাদক ইমরান হোসেন রবিন, সহ-আইন বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট দোলন, সমাজ কল্যান বিষয়ক সম্পাদক আমান উল্লাহ আমান, সহ-সমাজ কল্যান বিষয়ক সম্পাদক মোঃ মহসিন সরকার, মোঃ শাহাদাত হোসেন, মোঃ বাচ্চু মিয়া, রিয়াদ রায়হান সানি, তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক তারেক ফয়সাল, সহ-তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জিঃ আজিজুল হক ফয়সাল, আদনান রহমান, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক মোঃ সাজ্জাত হোসেন, সহ-আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক মোঃ খলিল মিয়া, শিক্ষা ও প্রশিক্ষন বিষয়ক সম্পাদক আবুল কাশেম ফারহান, সহ-শিক্ষা ও প্রশিক্ষন বিষয়ক সম্পাদক রিতু আমিন, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা আবু সুফিয়ান, সহ-ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক জিসান আহমেদ টিপু, অনুষ্ঠান ও সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক মোঃ আজিজুল ইসলাম, সহ-অনুষ্ঠান ও সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক শাহ পরান মোল্লা, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক এ্যাড. সোনিয়া, সহ মহিলা বিষয়ক সম্পাদক শ্যামলী চৌধুরী, কার্যকরী সদস্য মোঃ আব্দুর রাজ্জাক খান, মোঃ পিয়ার মোহাম্মদ, আল ফয়সাল হৃদয়, নাঈমুল হাসান রিপু, মোঃ নাঈম ভূইয়া, মোঃ ফয়সাল, মোঃ মেহেদী হাসান হৃদয়, আবুল কালাম আজাদ, মোঃ মোজাম্মেল, মোঃ রবিন, মোঃ এনামুল হক বিজয়, সদস্য চাঁন মিয়া ফাহিম, মোঃ রফিকুল ইসলাম খবির, মোঃ ইমন, মোঃ ইকলাছ মিয়া, মোঃ হারুন আর রশিদ প্রধান, মোঃ মমিনুল ইসলাম মমিন, মোঃ আরিফুল ইসলাম, সাইফুর রহমান, হাবিবুর রহমান, মোঃ মুসা মিয়া, তাইজুল ইসলাম, মোঃ আবু হানিফ ভ‚ইয়া, মোঃ রনি, মোঃ বাবুল হোসেন, মোঃ আনোয়ার হোসেন, মোঃ জহিরুল ইসলাম


“পরিবেশ রক্ষা ও উন্নয়ন সোসাইটি” একটি পরিবেশবাদী সংগঠন। একটি নাম একটি স্বপ্ন। আমরা স্বপ্ন দেখি সুন্দর একটি বাস যোগ্য ও দুষণ মুক্ত সুন্দর পৃথিবীর, শুরুতেই চাই নিজেদের পরিবর্তন করতে সেই সুন্দর পৃথিবীর জন্য। তাই সমাজের সকল ধরনের সুবিধাবঞ্চিত মানুষের জন্য, বাল্যবিবাহ বন্ধ ও মাদক মুক্ত সমাজ গঠন, প্রাক প্রাথমিক শিক্ষা প্রকল্প, স্বেচ্ছায় রক্তদান,ধর্ষন, খাদ্যে ভেজাল এবং ভিক্ষুকদের পুর্নবাসনে স্বেচ্ছাসেবী একটি সংগঠন। যার নাম “পরিবেশ রক্ষা ও উন্নয়ন সোসাইটি” অলাভজনক, অরাজনৈতিক একটি সামাজিক পরিবেশবাদী সংগঠন। এই সংগঠনটি কিছু তরুনদের সমন্বয়ে গঠিত হয়েছে। “একতা – মানবতা – সেবা” এই তিন মূলনীতি নিয়ে সংগঠনের শ্লোগান হল- “ সবাই মিলে গড়বো দেশ, দূষণ মুক্ত বাংলাদেশ”। সবার এই অংগীকারে আপনিও হতে পারেন “পরিবেশ রক্ষা ও উন্নয়ন সোসাইটি”র সহযাত্রী।

পরিবেশ রক্ষা ও উন্নয়ন সোসাইটির কেন্দ্রীয় কমিটির চেয়ারম্যান মোহাম্মদ হোসাইন, মহাসচিব মীযানুর রহমান “সোনারগাঁ উপজেলা কমিটিকে “পরিবেশ রক্ষা ও উন্নয়ন সোসাইটি”র পক্ষ থেকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানান।

সংগঠনের মহাসচিব মীযানুর রহমান সোনারগাঁ উপজেলা কমিটির সবাইকে অভিনন্দন জানাইয়ে বলেন “পরিবেশ রক্ষা ও উন্নয়ন সোসাইটি”কে সামনে এগিয়ে নিতে তারা অগ্রনী ভূমিকা পালন করবেন।

কেন্দ্রীয় কমিটির কোষাধক্ষ্য ও নারারায়ণগঞ্জ জেলার কমিটি সমন্বয়ক এইচ এম পারভেজ হাসান বলেন “সোনারগাঁ উপজেলা” কমিটিকে অভিনন্দন জানাইয়ে বলেন, সোনারগাঁ উপজেলা কমিটি “পরিবেশ রক্ষা ও উন্নয়ন সোসাইটি”র লক্ষ ও উদ্দেশ্য বাস্তবায়নে সংগঠনটি সক্ষম হবে ইনশাল্লাহ।

 





নিউজ ডেস্ক :  সোনারগাঁ উপজেলা সনমান্দি ইউনিয়নে  বাসমাহ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ৫শত  স্যানেটারী ন্যাপকিন নারীদের মাঝে  বিতরণ করা হয়েছে ।


২৮শে আগস্ট শনিবার বিকেল ৪ ঘটিকায়  সোনারগাঁ উপজেলার সনমান্দি ইউনিয়নের নাজির পুর এলাকায়  ন্যাপকিন বিতরন ও সচেতনতামূলক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।


স্যানেটারী ন্যাপকিন বিতরণ ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সোনারগাঁ উপজেলা সনমান্দি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহিদ হাসান জিন্নাহ্ ।


স্যানেটারী ন্যাপকিন বিতরণী বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য দেন   সোনারগাঁ উপজেলা পরিষদের মহিলা  ভাইস চেয়ারম্যান মাহমুদা আক্তার ফেন্সি।


আরো উপস্থিত ছিলেন বাসমাহ ফাউন্ডেশনের মহাসচিব তুহিন মাহমুদ, সনমান্দি ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মোহাম্মদ আলী,সনমান্দি ইউনিয়ন কৃষকলীগের-সভাপতি জামাল উদ্দিন, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা জহিরুল হক খোকন,  সনমান্দি ইউপি সদস্য নুরুল ইসলাম  টিক্বা খাঁন,ইউপি সদস্য হারুন রশিদ মোল্লা, ,ইউপি সদস্য খাদিজা,ইউপি সদস্য শাহিনা, ইউপি সদস্য লুৎফা, গিয়াসউদ্দিন,রিপন ভূঁইয়া প্রমূখ।


এ সময় বক্তরা স্বাস্থ্য সুরক্ষা ও বাল্য বিয়ে নিয়ে বিভিন্নভাবে সচেতনতামূলক পরামর্শ দেন।



নিউজ ডেস্ক: নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার নোয়াগাও ইউনিয়নের জাতীয় পার্টি ও ইউপি সদস্যদের উদ্যোগে জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে গণভোজ মিলাদ ও দোয়া মাহফিল আয়োজন করা হয়।


শনিবার (২৮ শে আগস্ট) দুপুরে উপজেলার নোয়াগাও ইউনিয়নের লাধুরচরে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সহ তার পরিবারের সকল শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনায় মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।


দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ- ৩ আসনের সংসদ সদস্য,জাতীয় পার্টির প্রেসেডিয়াম সদস‍্য ও ঢাকা বিভাগের অতিরিক্ত মহাসচিব লিয়াকত হোসেন খোকা।


প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমপি খোকা বলেন ২০০৪ সালে তারেক জিয়ার হাওয়া ভবনে ২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলার পরিকল্পনা করা হয় সেই হামলায় মুফতি হান্নান, তাজউদ্দীন, আব্দুস সালাম পিন্টু,আরো তৎকালীন সরকারের অনেক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি জড়িত ছিল,তারা চেয়েছিল তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেতা আজকের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সহ আওয়ামীলীগকে নেতৃত্ব শূন্য করার নীল নকশা তৈরি করে। আল্লাহর অশেষ রহমতে সেদিন প্রধানমন্ত্রী বেচে গিয়েছে কিন্তু অকালে ঝরে গেছে ২৪ টি তাজা প্রাণ,  ভাগ্যের নির্মম পরিহাস সেদিন জজ মিয়া নাটক করে গ্রেনেড হামলার বিচার বন্ধ করে রাখা হয়। আজকে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে তার বিচার শুরু হয়েছে   ইনশাআল্লাহ এই মহাজোট সরকারের সময় বিচার শেষ হবে আপনারা সবাই প্রধানমন্ত্রীর জন্য দোয়া করবেন।


দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে আরো উপস্থিত ছিলেন জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির কেন্দ্রীয় সমাজ কল্যান সম্পাদক মোঃ আনিসুর রহমান বাবু, আনোয়ার হোসেন মেম্বার,সাকিব হাসান মেম্বার,শফিকুল ইসলাম মাষ্টার, মোঃ শফিকুল ইসলামসহ  জাতীয় পার্টির স্থানীয় নেতাকর্মীগণ।




নিউজ ডেস্ক : নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার সাদিপুর ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির উদ্যোগে জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে গণভোজ মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত।


২৬শে আগস্ট বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার সাদিপুর ইউনিয়নের বরগাও দবির‌উদ্দিন ভূঁইয়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ইউনিয়ন জাতীয় পার্টি কর্তৃক আয়োজিত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সহ তার পরিবারের সকল শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনায় মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।


দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ- ৩ আসনের সংসদ সদস্য,জাতীয় পার্টির প্রেসেডিয়াম সদস‍্য ও ঢাকা বিভাগের অতিরিক্ত মহাসচিব লিয়াকত হোসেন খোকা।


এসময় গণভোজ ও দোয়া মাহফিলে লিয়াকত হোসেন খোকা এমপি বলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারকে হত্যায় লাভবান হয়েছে  খুনী মোশতাক ও জিয়াউর রহমান কারণ একজনের সখ ছিল রাষ্টপ্রতি হওয়া আরেকজনের সখ ছিল সেনা প্রধান হওয়া তাদের সাথে আরো কিছু বিপদগানী সেনা সদস্য জড়িত ছিল, তাদের মোশতাক ও জিয়াউর রহমান বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত সহ অনেক রাষ্টীয় গুরুত্বপূর্ণ পদে বসিয়েছে তারা আজকে তাদের বিচার আল্লাহ পাক করেছে তাদের দোষররা এখন ষড়যন্ত্র করে দেশের বিরুদ্ধে, তই তাদের থেকে সাবধান থাকতে হবে।


 জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সহ পরিবারের সকল সদস্যদের রুহের মাগফিরাত কামনা করেন।


দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে আরো উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির  কেন্দ্রীয় কমিটির প্রচার সম্পাদক মাসুদুর রহমান মাসুম,  সাদিপুর ইউনিয়ন জাপা’র সভাপতি আবুল হাসেম, ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা নুর হোসেন মেম্বার,জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টি কেন্দ্রীয় সমাজ কল্যান সম্পাদক মোঃ আনিসুর রহমান বাবু,মাইনুদ্দিন মেম্বার,জাকির মেম্বার,আমির আলী মেম্বার,কাসেম মেম্বার,জাতীয় পার্টি নেত্রী রুমা বেগম,ইসমাইল মেম্বার,রফিক মেম্বার,নুরুজ্জামান মেম্বার সহ জাতীয় পার্টির স্থানীয় নেতাকর্মীগণ।




নিউজ ডেস্ক  : নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁয়ের সংবাদপত্র বিক্রেতা মো: শাহজাহান ঢালী আর নেই।

ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

মঙ্গলবার (২৪ আগস্ট) বিকেল ৩ টায় ঢাকা বারডেম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন। এর আগের দিন রাতে তিনি স্ট্রোক করলে তাকে চিকিৎসার জন্য বারডেম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল।

সংবাদপত্র বিক্রেতা শাহজাহান ঢালীর মৃত্যুতে সোনারগাঁও রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি আব্দুস ছাত্তার প্রধান, সহ-সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান মাসুম ও সাধারণ সম্পাদক মো. দ্বীন ইসলাম অনিক সহ সকল সদস্য গভীর শোক ও সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন।


সংবাদপত্র বিক্রেতা মো: শাহজাহান ঢালী ঢাকা সংবাদপত্র হকার্স সমবায় সমিতির শেয়ার হোল্ডার ছিলেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর৷ তিনি স্ত্রী, ১ ছেলে ও ৫ মেয়েসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। তার পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে তার জানাজা রাত ৮ টায় ডেমরার স্টাফ কোয়ার্টার এলাকায় তার নিজ বাড়িতে অনুষ্ঠিত হবে৷



নিউজ ডেস্ক : নারায়নগঞ্জ-৩(সোনারগাঁ) আসনের সাংসদ ও জাতীয় পার্টি'র অতিরিক্ত মহাসচিব লিয়াকত হোসেন খোকা সোমবার (২৩ আগষ্ট) বিকেলে ৪০ গ্রামের হাজারো সাধারন জনগণের কল্যানে নির্মিত স্বপ্নের হরিহরদী সেতু পরিদর্শন করেন।উল্লেখ্য,জননেতা লিয়াকত হোসেন খোকা সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হওয়ার পরপরই মুছারচর এলাকায় সাধারণ মানুষের দুঃখ-দুর্দশা ও ব্রহ্মপুত্র নদ পারাপারে জনসাধারণের দুর্ভোগ স্বচক্ষে দেখতে ওই এলাকা পরিদর্শনে যান।


ঐ সময় তিনি জরাজীর্ণ বাঁশের সাঁকো ভেঙে পানিতে পড়ে আহত হন।এতে এমপি খোকা'র  উপলব্ধি হয়,হাজার হাজার সাধারণ মানুষের চলাচলে কতটা ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে যুগের পর যুগ।


৪০ টি গ্রামের জনগণের দূর্দশা ও ভোগান্তির কথা চিন্তা করে সেতুটি নির্মাণে জননেতা এমপি লিয়াকত হোসেন খোকা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করেন।এরই প্রেক্ষিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সুদৃষ্টির কারণে সোনারগাঁয়ে ব্রহ্মপুত্র নদে হরিহরদী সেতু নির্মাণ করা সম্ভব হয়েছে।


এ সেতু নির্মাণের পর আনন্দের জোয়ারে ভাসছে সোনারগাঁ উপজেলার জামপুর ইউনিয়নের মুছারচর, চরতালিমাবাদ, রাজাপুর ও সনমান্দী ইউনিয়নের দড়িকান্দি, হরিহরদী, টেমদী, বিজয়নগর, আলমদী, দক্ষিণপাড়া, মুসুরদী, জোয়ারদী, আটিবাড়ি, খৈতেরগাঁও, ছনকান্দা, কুমারচর, দড়িকান্দী, লেদামদী, সনমান্দী, ফতেপুর, ফতেপুর দড়িকান্দী, গাঙ্গুলকান্দী ও নোয়াকান্দীসহ ৪০ গ্রামের লোকজন।

এলাকাবাসী এখন শুধু প্রহর গুণছেন,কখন উদ্বোধন হবে তাদের স্বপ্নের সেই হরিহরদী সেতু।

পরিদর্শন শেষে এমপি খোকা জানান,শীগ্রই সেতুটি উদ্বোধন করে জনসাধারণের চলাচলের জন্য খুলে দেয়া হবে।এ সময় সাংসদ খোকা'র সাথে উপস্থিত ছিলেন সনমান্দী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহিদ হাসান জিন্নাহ,জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সমাজ কল্যান বিষয়ক সম্পাদক আনিসুর রহমান বাবু , সনমান্দী ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক আবুল হোসেন ও ইউপি সদস্যবৃন্দ, 

সনমান্দী ইউনিয়ন,জামপুর ইউনিয়ন জাতীয় পার্টি ও এর অঙ্গ সংগঠনের অসংখ্য নেতৃবৃন্দ এবং স্থানীয় জনসাধারণ।

 



নিউজ ডেস্ক : নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার সাবেক এমপি কায়সারের উদ্যোগে জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে গণভোজ মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত।

২৩শে আগস্ট সোমবার দিনব্যাপী উপজেলার শম্ভুপুরা ইউনিয়নের,দূর্গাপ্রসাদ,টেকপাড়া,চৌধুরীগাঁও,হোসেন পুর,নবী নগর,ফতেপুর,শম্ভুপুরা ও এলাহী নগরের আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সকল সংগঠন কর্তৃক আয়োজিত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সহ তার পরিবারের সকল শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনা গণভোজ মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।



আলোচনা মিলাদ ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সাবেক সফল সংসদ সদস্য ও সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক আলহাজ্ব আব্দুল্লাহ আল কায়সার হাসনাত।



এ সময় প্রধান অতিথি কায়সার হাসনাত বঙ্গবন্ধু সহ পরিবারের নিহত সকল শহীদদের স্মরণে দোয়া করে রুহের মাগফিরাত কামনা করেন।


দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন,নারায়ণগঞ্জ জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক নিজামুদ্দিন,নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের সদস্য ও আহ্বায়ক কমিটির সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান মাসুম, উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি ও আহ্বায়ক কমিটির সদস্য রফিকুল ইসলাম নান্নু, যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কামাল হোসেন, যুব মহিলা লীগের সভাপতি এড. নুরুজাহান,সোনারগাঁও উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আরিফুল ইসলাম রবিন,শম্ভুপুরা ইউপি. চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী নাসির উদ্দিন, মোগরাপাড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের  সভাপতি সাগর, উপজেলা যুবলীগের প্রচার সম্পাদক নাসির উদ্দিন, পৌর যুবলীগের সভাপতি আসাদ ,ম্ভুপুরা ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক পীর মোহাম্মদ, শম্ভুপুরা ইউনিয়ন যুবলীগের সহ-সভাপতি জামান, উপজেলা ছাত্রলীগের নেতা নাজমুল ইসলাম শান্ত, শম্ভুপুরা ইউনিয়নের ৭নং ওয়াড মেম্বার পদপ্রার্থী জাহিদ হাসান জাহিদ সহ উপজেলা ও ইউনিয়ন আওয়ামী ,যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও সহযোগী সংগঠনের সকল নেতৃবৃন্দ।





নিউজ ডেস্ক :নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁও উপজেলার সাবেক সাংসদ ও উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহবায়ক কায়সার হাসনাত বলেছেন" জেলা আওয়ামীলীগের একজন নেতা হয়ে ডাঃ আবু জাফর চৌধুরী বিরু সোনারগাঁও উপজেলার ঐক্যবদ্ধ আওয়ামীলীগকে বিভক্ত করার জন্য ভূল পথে চলছেন।সোনারগাঁওয়ের আহবায়ক কমিটির সকল নেতাকর্মীরা একত্রিত হয়ে ১৫ই আগষ্ট জাতীয় শোক দিবস পালন ও ২১শে আগষ্টের গ্রেনেড হামলায় নিহতদের মাগফেরাত কামনায় যে মিলাদ,দোয়া ও আলোচনা সভা করেছেন সেখানে ডাঃ বিরু উপস্থিত না হয়ে একা একা তিনি কিছু নিজস্ব সমর্থকদের নিয়ে সভা করে আওয়ামীলীগের মধ্যে অনৈক্যের সৃষ্টি করতে চেয়েছেন।আজকে এই মঞ্চে উপস্থিত জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল হাই ভাই সহ ঊর্ধ্বতন নেতাদের আহবান জানাচ্ছি যারা সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামীলীগের মধ্যে বিভক্তি ও বৈষম্য সৃষ্টি করতে চায় তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করুন। 

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে  সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে শনিবার ২১শেআগষ্ট বিকেলে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের  মোগরাপাড়া চৌরাস্তায়  বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের সামনে ২০০৪ সালের ২১ শে আগষ্ট বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামীলীগের জনসভায় কাপুরুষোচিত গ্রেনেড হামলায় নিহতদের রুহের মাগফেরাত কামনা ও বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু কামনায় দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভায় অনুষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব আব্দুল হাই (সভাপতি নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ), প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আব্দুল্লাহ আল কায়সার হাসনাত ( ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সাবেক সাংসদ সদস্য নারায়ণগঞ্জ -৩, সভাপতিত্ব করেন জনাব আলহাজ্ব ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমান মাসুম যুগ্ম আহবায়ক সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামী লীগ আহবায়ক কমিটি ও চেয়ারম্যান পিরোজপুর ইউনিয়ন পরিষদ। সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক কমিটির আয়োজনে উক্ত অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন,জেলা পরিষদের সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগের  আহবায়ক কমিটির সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান মাসুম,কেন্দ্রীয় যুব মহিলা লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নাসরিন সুলতানা ঝরা,উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও আহবায়ক কমিটির সদস্য রফিকুল ইসলাম নান্নু,আহবায়ক কমিটির সদস্য ও মোগড়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আরিফ মাসুদ বাবু,গাজী মুজিবুর রহমান,এডভোকেট ফজলে রাব্বি সহ দলীয় নেতাকর্মীরা।

  



২১ শে আগস্ট গ্রেনেড হামলা কারীদের ফাসীর দাবীতে প্রতিবাদ সভা 

নিউজ ডেস্ক : নারায়নগঞ্জ বন্দর উপজেলা ধামগড় ইউনিয়ন  ১ নং ওয়ার্ডের কাজীপাড়া এলাকায় ২১ শে আগস্ট গ্রেনেড হামলা কারীদের ফাসীর দাবীতে  এক প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। 


২১ শে আগষ্ট  শনিবার  বিকাল ৩ ঘটিকায় গ্রেনেড হামলায় নিহত শহিদদের স্মরনে ও হামলা কারীদের ফাসীর দাবীতে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। 

উক্ত অনুষ্ঠানে ধামগড় ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মাসুম আহম্মেদের সভাপতিত্বে, 

প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বন্দর উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব এম এ রশিদ। 

প্রধান বক্তা বন্দর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব কাজিম উদ্দিন প্রধান। বিশেষ অতিথি মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সালিমা হোসেন শান্তা,জেলা আওয়ামীলীগ সদস্য এডভোকেট ইসাহাক, ২৬ নং ওয়ার্ড সাবেক কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন আনু, 

আওয়ামীলীগ নেতা  সাদেক হোসেন ভুইয়া,গোলজার হোসেন , আবু সাঈদ মেম্বার, ধামগড় ইউনিয়ন  শ্রমিক লীগের সভাপতি মোঃ  মোশাররফ  হোসেন মোল্লা, ধামগড় ইউনিয়ন যুবলীগের  পদপ্রার্থী  নজরুল ইসলাম বাদশা,  আওয়ামিলীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ । এ সময় প্রধান অতিথি বক্তব্যে বলেন,২০০৪ সালের ২১শে আগষ্ট বঙ্গবন্ধু এ্যাভিনিউয়ে আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে দলীয় সমাবেশে বর্বরোচিত গ্রেনেড হামলা করা হয়। সেদিন আওয়ামীলীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক ও প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের সহধর্মিণী আইভি রহমান সহ ২৪জন নেতা-কর্মী প্রান হারায়। গ্রেনেডের স্পিলিন্টারের আঘাতে প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সংবাদিক সহ আহত হন পাঁচ শতাধিক নেতা-কর্মী। মৃত্যেু ও রক্তশ্রোতে নারকীয় নজিরবিহীন গ্রেনেড হামলার আজ শনিবার ১৭তম বার্ষিকী।






নিউজ ডেস্ক  : ২১শে আগস্টের গ্রেনেড হামলা বাংলাদেশে ২০০৪ সালের ২১শে আগস্ট ঢাকায় আওয়ামী লীগের এক জনসভায় গ্রেনেড হামলা, যে হামলায় ২৪ জন নিহত হয় এবং তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেত্রী শেখ হাসিনা সহ প্রায় ৩০০ লোক আহত হয়। আহত হওয়া শহীদদের স্মরণে ও হত্যাকারীদের বিচারের দাবিতে সোনারগাঁওয়ে  মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে।


শনিবার  (২১ আগস্ট) দুপুরে সোনারগাঁও  উপজেলা  নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি ও মোগরাপাড়া ইউনিয়নের পরিষদের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হাজী শাহ মোঃ সোহাগ রনির উদ্যোগে  এক বিশাল র‍্যালি ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়।


এসময় সোহাগ রনি  ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামালায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি এবং একই সঙ্গে দেশে বিরোধী শক্তির অপতৎপরতা রুখতে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানান।



এ সময় সোহাগ রনিসহ মোগরাপাড়া ইউনিয়নের সকল ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।




সোনারগাঁও (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি:

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে নারায়নগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার সনমান্দি ইউনিয়নের অলিপুরা বাজারে বৃহস্পতিবার(১৯ আগষ্ট) জাতীয় পার্টি আয়োজিত দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে  ইউনিয়ন জাতীয় পার্টি সভাপতি আবুল হোসেনের সভাপতিত্বে ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশিদ মেম্বারের পরিচালনায়  প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সোনারগাঁ থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ঢাকা বিভাগীয় অতিরিক্ত মহাসচিব লিয়াকত হোসেন খোকা।


প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমপি খোকা বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কোন দল বা গোষ্ঠীর নয়,তিনি সারা বাঙালি জাতির মহাপুরুষ ,বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে এ দেশ স্বাধীন হতো না , আজকে তাঁর সুযোগ্য কন্যা দেশরত্ন ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃঢ় নেতৃত্বে আজ বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেল।এ সময় তিনি আরও বলেন,আপনারা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর  জন্য দোয়া করবেন, আল্লাহ পাক যেন তাকে দীর্ঘ হায়াত দান করেন।উক্ত সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির প্রচার সম্পাদক মোঃ মাসুদুর রহমান মাসুম, জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সমাজ কল্যান সম্পাদক আনিসুর রহমান বাবু, জাতীয় পার্টি নেতা তোতা মেম্বার, মোমেন সরকার, সাকিব হাসান মেম্বার, ফিরোজ মেম্বার, রুহুল আমীন মেম্বার,,ইসরাফিল,  মতিউর রহমান মেম্বার,  ইউনিয়ন জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির সভাপতি জহির হোসেনসহ নেতৃবৃন্দ ।




নিউজ ডেস্ক : সোনারগাঁওয়ে যারা আওয়ামীলীগের দুঃসময়ে আন্দোলন সংগ্রামে অংশ না নিয়ে দলের সুসময়ে এসে দলের মধ্যে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে অনুরোধ জানান মাহফুজুর রহমান কালাম।

বাংলাদেশ আওয়ামী মটরচালক লীগ সোনারগাঁও শাখার উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস ও বঙ্গবন্ধুর শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা মিলাদ ও খাবার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়ে জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান কালাম এসব কথা বলেন।


মঙ্গলবার ১৭ই আগষ্ট বিকেল ৩টায় ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের মোগড়াপাড়া চৌরাস্তা এলাকায় এ মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।


বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান মাসুম, বাংলাদেশ আওয়ামী মটরচালক লীগ নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মো. আতাউর রহমান (আতা), সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামী মটরচালক লীগের সাধারণ সম্পাদক কবির হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. ইকবাল হোসেন, মোগড়াপাড়া ইউনিয়ন শ্রমীকলীগের সভাপতি সুরুজ্জামান প্রধান, সোনারগাঁও বিশ্ববিদ্যালয় সরকারী কলেজের ছাত্রলীগের সভাপতি মো. সজীব ইসলাম, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য সামসুজ্জামান সামসু, উপজেলা যুবলীগের প্রচার সম্পাদক নাছির হোসেনসহ আওয়ামীলীগ, যুবলীগ স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও ছাত্রলীগ সহ অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।


অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন, বাংলাদেশ আওয়ামী মটরচালক লীগ সোনারগাঁও শাখার সভাপতি মোঃ আনোয়ার হোসেন।




 সোনারগাঁও (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি:

সোনারগাঁওয়ে যথাযোগ্য মর্যাদার মধ্য দিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালন করেছেন নারায়ণগঞ্জ জেলার ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ও মোগরাপাড়া ইউনিয়নের পরিষদের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হাজী শাহ মোঃ সোহাগ রনি।


রবিবার সকাল থেকে সারাদিন ব্যাপী উপজেলার মোগরাপাড়া ইউনিয়নের ৯ টি ওয়ার্ডে তিনি উপস্থিত থেকে দোয়া ও মিলাদের মধ্যে দিয়ে এ শোক দিবস পালন করা হয়। পরে সবার মাঝে খিচুড়ি বিতরণ করা হয়। 


এ সময় উপস্থিত ছিলেন সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান শাহ আলম রুপন, মোঃ জামান, মনির ও সোনাখালি ৫নং ওয়ার্ড হাজী সামসুল আলম, মুক্তিশপুর ৭নং ওয়ার্ড গিয়াস উদ্দিন,  দমদমা ৪নং ওয়ার্ড ইদ্দিস আলী নাট্টকার, রমজান আলী জুলু সহ মোগরাপাড়া ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।




 নিউজ ডেস্ক :আজ ১৫ আগস্ট বাঙালী জাতির ইতিহাসে নেক্কারজনক অধ্যায় জাতীয় শােক দিবস। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার বাড়িতে অবস্থানরত স্বজনসহ সকল শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনায় সদর আলী বেপারী নতুন কাঁচা বাজার কমিটির আয়োজনে দোয়া মাহফিল ও গণভোজের করা হয়েছে।


মােগরাপাড়া ইউনিয়নের চৌরাস্তায় সদর আলী বেপারী নতুন কাঁচা বাজার কমিটির সভাপতি ও যুবলীগ নেতা হাজী বিল্লাল হোসেন বেপারীর উদ্যোগে রােববার ১৫ আগস্ট এ কর্মসূচী পালন করেন।


এ সময় প্রধান অতিথি হিসেবে গণভোজের খাবার বিতরণ ও দোয়ায় অংশ নেন সোনারগাঁ উপজেলা সাবেক সংসদ সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন আহ্বায়ক আব্দুল্লাহ আল কায়সার হাসনাত। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন আহবায়ক ও পিরোজপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমান মাসুম, নারায়ণগঞ্জে আওয়ামী লীগের সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান কালাম, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও আহবায়ক কমিটির সদস্য রফিকুল ইসলাম নান্নু, জেলা পরিষদের সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান মাসুম, নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী যুব পরিষদের সভাপতি এডভোকেট ফজলে ফজলে রাব্বী, উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি আরমান মেরাজ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক নাসের, পৌরসভা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গাজী আমজাদ, সনমান্দী ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান সাহাবুদ্দিন সাবু, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি রাসেল মাহমুদ, পিরোজপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী আহম্মাদ আলী তানভীর, পিরোজপুর ইউনিয়ন সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আব্দুস সাত্তারসহ বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।




নিউজ ডেস্ক : বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬ তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে তার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ -৩ (সোনারগাঁ) আসনের সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা. 


রোববার(১৫ই আগস্ট) সকালে সোনারগাঁ উপজেলা পরিষদ চত্তরে অবস্থিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন তিনি।


এরপর বঙ্গবন্ধুর প্রতি সম্মান জানিয়ে কিছুক্ষণ নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন তিনি। পরে ১৫ আগস্টের শহীদদের আত্মার শান্তি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।


এ সময় এমপি খোকার সঙ্গে ছিলেন সোনারগাঁ উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান বাবুল ওমর বাবু, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আতিকুল ইসলাম,সহকারী কমিশনার ভুমি গোলাম মুস্তাফা মুন্না,মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাহমুদা আক্তার ফেন্সি,সোনারগাঁ থানার অফিসার ইনচার্জ হাফিজুর রহমান,কাঁচপুর হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ মনিরুজ্জামান মনিরসহ আওয়ামী লীগ,জাতীয় পার্টির ও এর অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।


এরপর সোনারগাঁ উপজেলা জাতীয় পার্টির দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে সোনারগাঁ উপজেলা জাতীয় পার্টির পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এছাড়া সোনারগাঁ উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকেও শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়েছে।



সোনারগাঁও (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি:

১৫ই আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে তার তাঁর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক কমিটির সদস্যরা।

দিবসটি উপলক্ষে রোববার সকাল সাড়ে ৯টায় বাংলাদেশ লোক ও কারুশিল্প ফাউন্ডেশনে (যাদুঘর)  অবস্থিত জাতির পিতার ভাস্কর্যে ও উপজেলা চত্বরে অবস্থিত জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।পরে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন ও পৌরসভায় দোয়া মাহফিল আয়োজন শেষে গরীব ও অসহায়দের মাঝে খাবার বিতরন করা হয়।


সোনারগাঁ উপজেলা সাবেক সংসদ সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন আহ্বায়ক কমিটির সদস্য আব্দুল্লাহ আল কায়সার প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে পুস্পস্তাপক ও দোয়া মাহফিলে অংশগ্রহণ করেন। 


এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন,উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন আহবায়ক ও পিরোজপুর  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমান মাসুম,নারায়ণগঞ্জে আওয়ামী লীগের সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান কালাম,উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও আহবায়ক কমিটির সদস্য রফিকুল ইসলাম নান্নু,উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আহবায়ক কমিটির সদস্য মোহাম্মদ আলী হায়দার,জেলা পরিষদের সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান মাসুম,নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী যুব পরিষদের সভাপতি এডভোকেট ফজলে ফজলে রাব্বী, কেন্দ্রীয় মহিলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও আহবায়ক কমিটির সদস্য নাসরিন সুলতানা ঝরা,সোনারগাঁ পৌরসভা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গাজী আমজাদ,সনমান্দী ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান সাহাবুদ্দিন সাবু,উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি রাসেল মাহমুদ,পৌরসভা আওয়ামী লীগ নেতা মামুন আল ইসমাইলসহ বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

 



বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের সকল শহীদের প্রতি  বিনম্র শ্রদ্ধা জানিয়েছেন মোশাররফ  হোসেন 



নিউজ ডেস্ক :১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদাৎ বার্ষিকী। আর এই শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষ্যে বঙ্গবন্ধুকে ও তাঁর পরিবারের সকল শহীদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্জলি জানিয়েছেন,  বন্দর উপজেলা ধামগড় ইউনিয়ন শ্রমিক লীগের সভাপতি মোঃ মোশাররফ মোল্লা।

এক শোক বার্তায় তিনি জানান ‘বঙ্গবন্ধু ও স্বাধীন বাংলাদেশ পৃথক কিছু নয়। এই বাংলায় বঙ্গবন্ধু’র জন্ম হয়েছিল বলে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছিল। বাঙ্গালী জাতি নিঃশ্বাস ভরে স্বাধীনতার ঘ্রাণ নিতে পারছে। বঙ্গবন্ধু সর্বদা দেশের মানুষকে ভালবাসতেন। তাই তিনি বেঁচে থাকলে কুচক্রিরা নিজেদের উদ্দেশ্যে সফল হতে পারবেনা বিধায় ১৯৭৫ এর ১৫ই আগস্ট স্বপরিবারে তাঁকে হত্যা করে। তাঁর সাহসী নেতৃত্ব ও ত্যাগের বিনিময়ে এই বাংলাদেশ আমরা পেয়েছি।


তাই বঙ্গবন্ধুকে হারানোর শোককে শক্তিতে পরিণত করে আমরা তাঁর আদর্শ থেকে শিক্ষা নিয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সর্বদা দেশের জন্য কাজ করার অঙ্গিকার ব্যক্ত করছি’।




নিউজ ডেস্ক :১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদাৎ বার্ষিকী। আর এই শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষ্যে বঙ্গবন্ধুকে ও তাঁর পরিবারের সকল শহীদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্জলি জ্ঞাপন করেছেন,বন্দর উপজেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক খন্দকার হাতেম হোসাইন। 

  


এক শোক বার্তায় তিনি জানান ‘বঙ্গবন্ধু ও স্বাধীন বাংলাদেশ পৃথক কিছু নয়। এই বাংলায় বঙ্গবন্ধু’র জন্ম হয়েছিল বলে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছিল। বাঙ্গালী জাতি নিঃশ্বাস ভরে স্বাধীনতার ঘ্রাণ নিতে পারছে। বঙ্গবন্ধু সর্বদা দেশের মানুষকে ভালবাসতেন। তাই তিনি বেঁচে থাকলে কুচক্রিরা নিজেদের উদ্দেশ্যে সফল হতে পারবেনা বিধায় ১৯৭৫ এর ১৫ই আগস্ট স্বপরিবারে তাঁকে হত্যা করে। তাঁর সাহসী নেতৃত্ব ও ত্যাগের বিনিময়ে এই বাংলাদেশ আমরা পেয়েছি।

 



নিউজ ডেস্ক :১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদাৎ বার্ষিকী। আর এই শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষ্যে বঙ্গবন্ধুকে ও তাঁর পরিবারের সকল শহীদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্জলি জ্ঞাপন করেছেন,সোনারগাঁ উপজেলা মোগরাপাড়া ইউনিয়ন সদর আলী নতুন বাজার' র পরিচালক ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী  সমাজ সেবক, হাজি বিল্লাল হোসেন বেপারী,

  

এক শোক বার্তায় তিনি জানান ‘বঙ্গবন্ধু ও স্বাধীন বাংলাদেশ পৃথক কিছু নয়। এই বাংলায় বঙ্গবন্ধু’র জন্ম হয়েছিল বলে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছিল। বাঙ্গালী জাতি নিঃশ্বাস ভরে স্বাধীনতার ঘ্রাণ নিতে পারছে। বঙ্গবন্ধু সর্বদা দেশের মানুষকে ভালবাসতেন। তাই তিনি বেঁচে থাকলে কুচক্রিরা নিজেদের উদ্দেশ্যে সফল হতে পারবেনা বিধায় ১৯৭৫ এর ১৫ই আগস্ট স্বপরিবারে তাঁকে হত্যা করে। তাঁর সাহসী নেতৃত্ব ও ত্যাগের বিনিময়ে এই বাংলাদেশ আমরা পেয়েছি।




নিউজ ডেস্ক : -১৩ই আগষ্ট শুক্রবার বিকেল তিন ঘটিকায় নারায়ণগঞ্জ বন্দর উপজেলা ধামগড় ইউপি জাঙ্গাল সঃপ্রাঃ বিদ্যালয়ে,  আয়নাল হক ফাউন্ডেশন, প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান আওয়ামীলীগ নেতা ও ধামগড় ইউপি চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আলহাজ্ব আজিজুল হক আজিজের। উদ্যেগে ১৫ই আগষ্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর শাহাদাৎ বার্ষিকী পালন ও সফল করতে  প্রস্তুতিমুলক সভার আয়োজন করা হয়। সভায় ধামগড় ইউনিয়ন আওয়ামিলীগের ভারপ্রাপ্ত  সভাপতি আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম সিরাজের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আয়নাল হক ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আজিজুল হক আজিজ। স্বাধীনতার পরবর্তী এবারই প্রথম জাঁকজমকপূর্ণ করে বন্দর উপজেলার ধামগড় ইউপির বিভিন্ন স্পটে জাতির জনকের ৪৬তম মৃত্যু বার্ষিকী পালিত হচ্ছে।  অত্র ইউনিয়ন তিন তিনবারের প্রয়াত  আয়নাল হক আয়নাল চেয়ারম্যানের পুত্র। সেই ছাত্রলীগের রাজনীতি দিয়ে শুরু করা আজকের এ আওয়ামীলীগ নেতা আজিজুল হক আজিজ। একজন সৎ শিক্ষিত ও আদর্শবান সফল ব্যাবসায়ী। তারই উদ্যেগে ইউনিয়ন সকল পর্যায়ের নেতৃবৃন্দদের নিয়ে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে  বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবার সহ সকল শহীদদের আত্বার মঙ্গল কামনায় দোয়া মিলাদ ও তবারক বিতরন অনুষ্ঠান সফল করতে ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহন করেছে। 

এ বিষয়ে আজিজুল হক আজিজ জানান,আমার নেতা শামিম ওসমান ও বন্দর উপজেলা আওয়ামিলীগ সভাপতি আলহাজ্ব এম এ রশিদ চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে দলমত নির্বিশেষে জাতির পিতা ও তার পরিবার সহ সকল শহীদদের আত্বার মাগফেরাত কামনায় বন্দর উপজেলা তথা ধামগড় ইউপি প্রতিটি স্পটে দোয়া,মিলাদ ও তবারক বিতরন চলবে। প্রস্তুতি সভায় উপস্থিত ছিলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা হাতাব উদ্দিন,মুক্তিযোদ্ধা রুপচান মিয়া,বন্দর উপজেলা যুবলীগ সাধারন সম্পাদক খন্দকার হাতেম, আওয়ামীলীগ নেতা শরীফ হোসেন, শাহাজামাল,২নং ওয়ার্ড ফয়েজুর রহমান ফয়েজ মেম্বার, নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী মটর  শ্রমিকলীগ সভাপতি আব্দুর রহিম বাদশা,ধামগড় ইউনিয়ন আওয়ামিলীগ সহ-সভাপতি হাজ্বী নাসির উদ্দিন, স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি বিপ্লব হোসেন, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আক্তার হোসেন, হাজ্বী আউয়াল বাচ্চু প্রধান, ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি সোবহান,সাধারন সম্পাদক জুয়েল মিয়া, ৮নং ওয়ার্ড সাধারন সম্পাদক জসীম উদ্দিন, ৬নং ওয়ার্ড সমির হোসেন, ২নং ওয়ার্ড সভাপতি হাজ্বী আলী হোসেন প্রধান, সাধারন সম্পাদক আলী হোসেন দেওয়ান, যুগ্ম সম্পাদক কাজী আব্দুল কাদির ডাক্তার, ৫নং ওয়ার্ড সাধারন সম্পাদক জিয়াউর রহমান জিয়া,৯নং ওয়ার্ড সভাপতি মোঃ মুসলিম মিয়া সহ আওয়ামিলীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।




নিউজ ডেস্ক : হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী,স্বাধীনতার মহান স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার শহীদ পরিবারের রুহের মাগফেরাত কামনায় ১৫ই আগষ্ট জাতীয় শোক দিবস যথাযথ মর্যাদায় পালনের লক্ষ্যে সোনারগাঁওয়ে প্রস্তুতি মূলক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ শুক্রবার বিকেল ৫টায় সোনারগাঁও উপজেলার মোগড়াপাড়া কাচারী ভূমি অফিস মাঠে নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ সভাপতি ও মোগড়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী হাজী শাহ মোঃ সোহাগ রনি এ প্রস্তুতি মূলক সভার আয়োজন করেন।

এসময় মোগড়াপাড়া ইউনিয়নের প্রতিটি ওয়ার্ডের আওয়ামীলীগ,যুবলীগ,স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও ছাত্রলীগ সহ অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মী ও সচেতন মহলের সবার মতামত নিয়ে সুশৃঙ্খলভাবে যেনো জাতীয় শোক দিবস পালন করা হয় তা বিস্তারিত আলোচনা করা হয়।

এসময় বক্তব্য কালে চেয়ারম্যান প্রার্থী হাজী শাহ মোঃ সোহাগ রনি বলেন,আমরা পারিবারিক ভাবেই জনগণের সেবক হিসেবে বছরের পর বছর মোগড়াপাড়া বাসীর পাশে আছি ইনশাআল্লাহ সব সময় থাকবো।

এসময় সিদ্ধান্ত হয় যে মোগড়াপাড়া পোষ্ট অফিস প্রাঙ্গনে ৩০টি পাতিলে খিচুরী রান্না করে ইউনিয়নের প্রতিটি ওয়ার্ডে ভাগ করে পাঠিয়ে দেয়া হবে।



নিউজ ডেস্ক : গাছে গাছে ভরবে দেশ, সবুজ হবে বাংলাদেশ" 

এ শ্লোগাণকে ধারন করে সেভ দ্য ফিউচার ফাউন্ডেশন নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁ উপজেলা শাখার উদ্যোগে এবং সোনারগাঁও উপজেলার পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের লাহাপাড়া গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা মরহুম আহসান উল্লাহ সাহেবের সুযোগ‍্য পুত্র প্রবাসী মোঃ আমিনুল ইসলামের নিজস্ব অর্থায়নে অদ্য ১৩ই আগষ্ট রোজ শুক্রবার সোনারগাঁও পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের পৌর লাহাপাড়া গ্রামের কবরস্থান পরিস্কার ও বৃক্ষ রোপন করা হয়।


লাহাপাড়া জামে মসজিদের ইমাম সাহেবের মোনাজাতের মাধ্যমে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি উদ্ভোধন করেন প্রধান অতিথি সাবেক সংসদ ও নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মরহুম মোবারক হোসেন সাহেব এর সুযোগ্য পুত্র সাদা মনের মানুষ এরফান হোসেন দ্বীপ।


“সেভ দ্য ফিউচার ফাউন্ডেশন” সোনারগাঁ উপজেলা শাখার সভাপতি ও গরীবের উকিল নামে খ্যাত এডভোকেট মো: ফিরোজ মিয়া বলেন-প্রাচীন বাংলার রাজধানী সোনারগাঁও পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের পৌর লাহাপাড়া গ্রামের কবরস্থানে ফুল গাছ ও ফল গাছের চারা রোপন করার কর্মসূচি হাতে নিয়েছি। পর্যায় ক্রমে আমরা সোনারগাঁও পৌরসভার প্রতিটি কবরস্থানে পর্যায় ক্রমে আমরা বৃক্ষ রোপন বাস্তবায়ন করবো। ইনশাআল্লাহ।


এডভোকেট মো: ফিরোজ মিয়া বলেন-মুসলিম মানুষের প্রকৃত বাসস্থান হলো তাঁর কবর। তাই কবরস্থানে ফুলের বাগান করার পরিকল্পনা ছিল অনেক আগ থেকেই। কবরস্থানে প্রবেশ করলে মনে হবে কোন ফুলের বাগানে প্রবেশ করলাম। মহান আল্লাহ যেন সোনারগাঁও পৌরসভার প্রতিটি কবরস্থানে আমাদের ফুলের বাগান করার তৌফিক প্রদান করেন। পরিশেষে তিনি সকল স্বেচ্ছাসেবক সহ যারা উপস্থিত থেকে অনুষ্ঠানে সাহায্য ও সহযোগীতা করেছেন তাদের প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। 


অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন-লাহাপাড়া মাদ্রাসা কমিটির সভাপতি মো: ছাদেকুর রহমান, বিশিষ্ট সমাজ সেবক মোঃ আব্দুল  হাই, মোশারফ মোল্লা, মো: সফিকুল ইসলাম, মো: মনির হোসেন, মোঃ ইমাম মেহেদী, মোঃ সুমন, মো: ফজর আলী, মো: আজিজ, মোঃ নজরুল ইসলাম, “সেভ দ্য ফিউচার ফাউন্ডেশন” সোনারগাঁ উপজেলার শাখার ভিপি পারভেজ, সাংবাদিক মো: আমির হোসেন, মাজেদ ভূঁইয়া, মো: আলমগীর হোসেন প্রমুখ।





নিউজ ডেস্ক :১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদাৎ বার্ষিকী। আর এই শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষ্যে বঙ্গবন্ধুকে ও তাঁর পরিবারের সকল শহীদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্জলি জ্ঞাপন করেছেন,নারায়ণগঞ্জ জেলা  তাঁতী লীগের  সিনিয়র  সহ সভাপতি মোঃ  দেওয়ান কামাল  


এক শোক বার্তায় তিনি জানান ‘বঙ্গবন্ধু ও স্বাধীন বাংলাদেশ পৃথক কিছু নয়। এই বাংলায় বঙ্গবন্ধু’র জন্ম হয়েছিল বলে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছিল। বাঙ্গালী জাতি নিঃশ্বাস ভরে স্বাধীনতার ঘ্রাণ নিতে পারছে। বঙ্গবন্ধু সর্বদা দেশের মানুষকে ভালবাসতেন। তাই তিনি বেঁচে থাকলে কুচক্রিরা নিজেদের উদ্দেশ্যে সফল হতে পারবেনা বিধায় ১৯৭৫ এর ১৫ই আগস্ট স্বপরিবারে তাঁকে হত্যা করে। তাঁর সাহসী নেতৃত্ব ও ত্যাগের বিনিময়ে এই বাংলাদেশ আমরা পেয়েছি।




নিউজ ডেস্ক :১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদাৎ বার্ষিকী। আর এই শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষ্যে বঙ্গবন্ধুকে ও তাঁর পরিবারের সকল শহীদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্জলি জ্ঞাপন করেছেন, সোনারগাঁ উপজেলা আহবায়ক কমিটির সদস্য ও আসন্ন শম্ভুপুরা ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী মাহাবুব হোসেন সরকার।


এক শোক বার্তায় তিনি জানান ‘বঙ্গবন্ধু ও স্বাধীন বাংলাদেশ পৃথক কিছু নয়। এই বাংলায় বঙ্গবন্ধু’র জন্ম হয়েছিল বলে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছিল। বাঙ্গালী জাতি নিঃশ্বাস ভরে স্বাধীনতার ঘ্রাণ নিতে পারছে। বঙ্গবন্ধু সর্বদা দেশের মানুষকে ভালবাসতেন। তাই তিনি বেঁচে থাকলে কুচক্রিরা নিজেদের উদ্দেশ্যে সফল হতে পারবেনা বিধায় ১৯৭৫ এর ১৫ই আগস্ট স্বপরিবারে তাঁকে হত্যা করে। তাঁর সাহসী নেতৃত্ব ও ত্যাগের বিনিময়ে এই বাংলাদেশ আমরা পেয়েছি।


তাই বঙ্গবন্ধুকে হারানোর শোককে শক্তিতে পরিণত করে আমরা তাঁর আদর্শ থেকে শিক্ষা নিয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সর্বদা দেশের জন্য কাজ করার অঙ্গিকার ব্যক্ত করছি’।




নিউজ ডেস্ক : বন্দর উপজেলার ধামগড় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সার্বিক তত্বাবধানে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালন উপলক্ষ্যে ধামগড় ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মাসুম আহম্মেদের উদ্যোগে আওয়ামী লীগ ও সহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে এক প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।


(১২ আগস্ট) বৃহস্পতিবার দুপুরে ধামগড় ইউনিয়ন পরিষদের সভাকক্ষে উক্ত প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।


ধামগড় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য এডভোকেট ইসহাক মিয়ার সঞ্চালনায় উক্ত অনুষ্ঠানে নাসিক ২৬নং ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন আনু, বন্দর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক শ্রম সম্পাদক সোনা মিয়া, ধামগড় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আব্দুল আউয়াল বাচ্চু, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক মনির হোসেন মাস্টার,


ধামগড় ইউপি’র ২নং ওয়ার্ড মেম্বার ফয়েজুর রহমান মোল্লা, ধামগড় ইউনিয়ন ১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি নাসির উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক সামসুদ্দোহা, সিনিয়র সহ-সভাপতি আজগর আলী প্রধান, সহ-সভাপতি সাদেক ভূঁইয়া, ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি জামাল উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক রাসেল আহম্মেদ, ৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি নূরুল হক, সাধারণ সম্পাদক রহমত উল্লাহ, ৫নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি শফিকুল ইসলাম, সহ-সভাপতি আব্দুল মান্নান ভেন্ডার, ৬নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলী নূর হোসেন মাস্টার, ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহ আলম, সাধারণ সম্পাদক সবির হোসেন, ৮নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন, ৯নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মুসলিম মিয়া, সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন, সহ-সভাপতি বাচ্চু মিয়া,


ধামগড় ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি আব্দুস ছোবাহান, ধামগড় ইউনিয়ন শ্রমিক লীগের সভাপতি মোশারফ মোল্লা, আওয়ামী লীগ নেতা আয়নাল হক ও গোলজার হোসেন, যুবলীগ নেতা হৃদয় সহ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।




নিউজ ডেস্ক :১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদাৎ বার্ষিকী। আর এই শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষ্যে বঙ্গবন্ধুকে ও তাঁর পরিবারের সকল শহীদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্জলি জ্ঞাপন করেছেন, কাঁচপুর এ্যাপোলো হসপিটাল এন্ড কম্পিউটারাইজড ডায়াগনস্টিক সেন্টার" র ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাসুম বিল্লাহ।  


এক শোক বার্তায় তিনি জানান ‘বঙ্গবন্ধু ও স্বাধীন বাংলাদেশ পৃথক কিছু নয়। এই বাংলায় বঙ্গবন্ধু’র জন্ম হয়েছিল বলে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছিল। বাঙ্গালী জাতি নিঃশ্বাস ভরে স্বাধীনতার ঘ্রাণ নিতে পারছে। বঙ্গবন্ধু সর্বদা দেশের মানুষকে ভালবাসতেন। তাই তিনি বেঁচে থাকলে কুচক্রিরা নিজেদের উদ্দেশ্যে সফল হতে পারবেনা বিধায় ১৯৭৫ এর ১৫ই আগস্ট স্বপরিবারে তাঁকে হত্যা করে। তাঁর সাহসী নেতৃত্ব ও ত্যাগের বিনিময়ে এই বাংলাদেশ আমরা পেয়েছি।




নিউজ ডেস্ক :১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদাৎ বার্ষিকী। আর এই শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষ্যে বঙ্গবন্ধুকে ও তাঁর পরিবারের সকল শহীদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্জলি জ্ঞাপন করেছেন, বন্দর উপজেলা  মদনপুর ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোঃ আক্তার  হোসেন। 


এক শোক বার্তায় তিনি জানান ‘বঙ্গবন্ধু ও স্বাধীন বাংলাদেশ পৃথক কিছু নয়। এই বাংলায় বঙ্গবন্ধু’র জন্ম হয়েছিল বলে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছিল। বাঙ্গালী জাতি নিঃশ্বাস ভরে স্বাধীনতার ঘ্রাণ নিতে পারছে। বঙ্গবন্ধু সর্বদা দেশের মানুষকে ভালবাসতেন। তাই তিনি বেঁচে থাকলে কুচক্রিরা নিজেদের উদ্দেশ্যে সফল হতে পারবেনা বিধায় ১৯৭৫ এর ১৫ই আগস্ট স্বপরিবারে তাঁকে হত্যা করে। তাঁর সাহসী নেতৃত্ব ও ত্যাগের বিনিময়ে এই বাংলাদেশ আমরা পেয়েছি।




নিউজ ডেস্ক :নারায়নগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার নোয়াগাঁও ইউনিয়নের বিষ্ণাদী গ্রামের সফর পাগলা (৬২) করোনায় আক্রান্ত হয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যুবরন করেন।

উল্লেখ্য, তিনি ৫ আগষ্ট করোনায় আক্রান্ত হলে নারায়ণগঞ্জ-৩ (সোনারগাঁ) আসনের সাংসদ ও জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকার নির্দেশে আমরা স্বেচ্ছাসেবী করোনা যোদ্ধার পরিচালক ওমর ফারুক এবং নোয়াগাঁও ইউনিয়নের টিম লিডার সাকিব হাসানের নেতৃত্বে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। 


বৃহস্পতিবার (১২ আগষ্ট) ভোরে তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু বরন করেন। খবর পেয়ে সাংসদ খোকা তাঁর গঠিত আমরা স্বেচ্ছাসেবী করোনা যোদ্ধা টিমের পরিচালক ওমর ফারুক এবং নোয়াগাঁও ইউনিয়ন টিম লিডার সাকিব হাসানকে করোনায় মৃত সফর পাগলার লাশ দাফন কাফনের নির্দেশ দেন। পরে আমরা স্বেচ্ছাসেবী করোনা যোদ্ধা টিমের পরিচালক ওমর ফারুক এবং নোয়াগাঁও ইউনিয়নের টিম লিডার সাকিব হাসান তাঁদের স্বেচ্ছাসেবীদের নিয়ে মৃত সফর পাগলার লাশ দাফন কাফন সম্পন্ন করেন।


তবে সন্মুখ সারীর করোনা যোদ্ধা হিসেবে উপস্থিত থেকে এ সময় লাশ দাফন কাফনে বিভিন্ন দিকনির্দেশনাসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেন জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টি'র কেন্দ্রীয় কমিটির সমাজ কল্যান বিষয়ক সম্পাদক আনিসুর রহমান বাবু। 


মূলত, দেশে করোনা সংক্রমণের শুরু থেকেই সাংসদ খোকার পরামর্শ অনুযায়ী আনিসুর রহমান বাবু পুরো উপজেলা জুড়ে করোনায় আক্রান্তদের ফলমূল, খাদ্য সামগ্রী এবং ঔষধসেবাসহ বিভিন্ন কার্যক্রম চালিয়ে আসছেন। এছাড়াও করোনায় মৃত ব্যাক্তিদের লাশ দাফন কাফন সম্পন্ন করতে আমরা স্বেচ্ছাসেবী করোনা যোদ্ধা টিমকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণসহ বিভিন্ন দিকনির্দেশনা দিয়ে আসছেন আনিসুর রহমান বাবু। উল্লেখ্য, আমরা স্বেচ্ছাসেবী করোনা যোদ্ধা টিম এ পর্যন্ত ৫১ জন করোনায় মৃতদের লাশ দাফন সম্পন্ন করেন। 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন আমরা স্বেচ্ছাসেবী করোনা যোদ্ধা টিমের নোয়াগাঁও ইউনিয়নের পরিচালক মাহবুব আলম বাবু, সাংবাদিক আলমগীর হোসেন প্লাবন, নোয়াগাঁও ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের আরমান পনির, মেহেদী হাসান (ইকরাম), আতাউর রহমান, আরিফ হোসেন, গোলাম রাব্বি, রাব্বি হোসেন, মিজান শিকদার, সৈয়দ আরিফুল ইসলাম, মোঃ আজিজুল হক, সুজন মীর, হাসান মল্লিক এবং নোয়াগাঁও ইউনিয়নের পরিষদের ২ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোঃ হালিম প্রমুখ।




সোনারগাঁও (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি:

করোনা ভ্যাকসিন কার্যক্রমের সোনারগাঁয়ের বিভিন্ন টিকা কেন্দ্র পরিদর্শন করে নারায়ণগঞ্জ-৩ (সোনারগাঁ) আসনের সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।

বিশ্বব্যাপি মহামারী করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে বর্তমান সরকারের প্রসংশনীয় এই টিকা কার্যক্রমের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি। 

শনিবার সকাল থেকে দিন ব্যাপি সোনারগাঁও পৌরসভাসহ বিভিন্ন কেন্দ্র পরিদর্শন করে এই কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

এসময় তিনি জনসাধারণের প্রতি স্বাস্থ্যবিধি মেনে সকলকে মাক্স পড়ার আহ্বান জানান। 

কেন্দ্র পরিদর্শনকালে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ,অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ শামীম বেপারী,উপজেলা নির্বাহি অফিসার আতিকুল ইসলাম,উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি)গোলাম মোস্তফা মুন্না, উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান বাবুল ওমর বাবু। 

এছাড়াও প্রতিটি ইউনিয়ন পরিষদ কেন্দ্র পরিদর্শনকালে উপস্থিত ছিলেন,কাঁচপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোশাররফ ওমর,সনমান্দী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহিদ হাসান জিন্নাহ,বারদী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জহিরুল হক,নোয়াগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইউসুফ দেওয়ান,বৈদ্যোবাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ডাঃ আব্দুর রউফ,কেন্দ্রীয় জাতীয় পার্টির প্রচার সম্পাদক মোঃ মাসুম,কেন্দ্রীয় জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির সমাজ কল্যান সম্পাদক  আনিসুর রহমান বাবু,উপজেলা সাধারণ সম্পাদক আলী হায়দার,কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের তথ্য ও গন যোগাযোগ সম্পাদক মোঃ হোসাঈনসহ স্থানীয় মেম্বার,থানা-পুলিশ,স্বাস্থ্য কর্মী,সাংবাদিক প্রমুখ।

 



নিউজ ডেস্ক :

মহামারী করোনা মানুষকে ভীতিকর অবস্থায় ফেলে দিলে যারা এগিয়ে এসে জীবন বাজি রেখে করোনা ও করোনার সংক্রমণের লক্ষ্মণ নিয়ে মৃত লাশের দাফন দিচ্ছে তাদের মধ্যে নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকার আমরা স্বেচ্ছাসেবী করোনা যোদ্ধা অন্যতম। 


শুক্রবার (৬ ই আগস্ট) রাত ১০টায় সোনারগাঁ উপজেলা মোগরাপাড়া ইউনিয়নের ছোট কাজিরগাঁও এলাকার মৃত আহমেদ আলী ভূঁইয়ার দ্বিতীয় ছেলে নজরুল ইসলাম ভূঁইয়া (৬০) করোনায় আক্রান্ত হয়ে ঢাকা মালিবাগ প্রগতি হাসপাতলে আজ দুপর ২.০০ ঘটিকায় মৃত্যু বরন করেন। মৃত আহমেদ আলী ভূঁইয়ার দ্বিতীয় ছেলে নজরুল ইসলাম ভূঁইয়া (৬০) লাশ দাফন সম্পন্ন করে নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির সভাপতি লিয়াকত হোসেন খোকার আমরা স্বেচ্ছাসেবী করোনা যোদ্ধা নামে গঠিত স্বেচ্ছাসেবী দল। ইতিমধ্যে উপজেলার ৪৭টি করোনা ও করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত ব্যক্তির লাশ দাফন-কাফন কাজ সম্পাদন করেছেন তারা। 



কাফন দাফন কাজে অংশ গ্রহন করেন- পরিচালক মোঃ ওমর ফারুক, পৌর টিম লিডার আজিজুল হক, এ,এম খন্দকার বুল বুল,মোঃ সুমন মীর, মাসুম, মোঃ মিজানুর সিকদার, মোঃ সুমন সরকার প্রমুখ।



জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা টিমের কার্যক্রম সম্পর্কে জানাতে গিয়ে বলেন, করোনার ভয়ে ছেলে-মেয়ে সহ পরিবারের কেউ যখন বাবার লাশ ধরতে এগিয়ে না আসে ঠিক ঐ সময়টিতে সোনারগাঁওয়ের একঝাঁক তরুণদের মানবিক দায়িত্ব পালনে মানুষের দাফন কাফন ও অসহায়দের সহায়তা করতে এই টিম গঠন করেছি। সৃষ্টিকর্তার সন্তুষ্টি অর্জনের লক্ষ্যে এই টিমের কার্যক্রম চলমান এবং করোনা শেষ না হওয়া পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে। 

তিনি আরো জানান, আমরা স্বেচ্ছাসেবী করোনা যোদ্ধা টিম করোনার ছোবলে অসহায় হয়ে পরা সমাজে মানুষের পাশে থাকার অঙ্গিকার নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় ইতিমধ্যে করোনা আক্রান্ত রোগী ও তার পরিবারের খাদ্য, মেডিসিন ও প্রয়োজনীয় সকল সরঞ্জাম সরবরাহ করে আসছে।




নিউজ ডেস্ক : নারায়ণগঞ্জ বন্দর উপজেলা মুছাপুর ইউনিয়ন পরিষদ মাঠে ষ্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক ও কুমুদিনী ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট্রের সৌজন্যে তিনশত পঞ্চাশ টি অসহায় পরিবার ও পঞ্চাশ  টি বেদে পল্লী  পরিবারদের  মাঝে ত্রান বিতরন করা হয়েছে। যাদের মধ্যে পঞ্চাশ জন বেদে পরিবারের মাঝে ও ত্রান সহযোগীতা দেয়া হয়েছে। ত্রান বিতরন অনুষ্ঠানে মুছাপুর ইউপি আলহাজ্ব মোহাম্মদ মাকসুদ হোসেন চেয়ারম্যানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার শুক্লা সরকার। বিশেষ অতিথি বন্দর থানা অফিসার ইনচার্জ ওসি দীপক চন্দ্র সাহা,কুমুদিনী ডি জিএম হরি কিশোর দত্ত,হাজ্বী মোঃ আনোয়ার হোসেন ৮নং ওয়ার্ড সদস্য, ২নং ওয়ার্ড বিল্লাল হোসেন মেম্বার, ইউনিয়ন সচিব বশির আহম্মদ সহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ।


এ সময় প্রধান অতিথি শুক্লা সরকার সবাইকে মহামারি করোনা ভাইরাস ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে ত্রান নেয়ার আহবান জানান। সেই সাথে  সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে  ত্রান গ্রহন সহ অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করতে বলেন। তিনি আরো বলেন করোনায় যেভাবে মানুষ মারা যাচ্ছে তাতে আপনাদের আমাদের প্রত্যেকেরই সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে। 

প্রতি চারশত, পরিবারকে দশ কেজী চাল, তিন কেজী ডাল, তিন কেজী আটা,এক লিটার তৈল,দুই পিছ সাবান, এক কেজী চিনি বিতরন করা হয়।

পরে উপস্থিত বেদে পরিবার ও অসহায় পরিবারের মাঝে ত্রান সামগ্রী বিতরন করা হয়। 




নিউজ ডেস্ক : নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁওয়ে অপহরণ করে জোর পূর্বক বিয়ের ১ বছর না পেরোতেই স্ত্রীকে পর্নোগ্রাফিতে বাধ্য করতে মারধর করার অভিযোগে বখাটে স্বামী মোরসালিনকে এক বছরের কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত।


রবিবার (১ আগস্ট) সকালে সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আতিকুর ইসলাম ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে বখাটে মোরসালিনকে এক বছরের কারাদন্ড প্রদান করেন। এর আগে শনিবার (৩১ জুলাই) রাতে মোরসালিনকে গ্রেফতার করে সোনারগাঁ থানা পুলিশ।


পুলিশসূত্রে জানা যায়, সোনারগাঁ পৌরসভার ফতেকান্দী গ্রামের জাকির হোসেনের মেয়ে এসএসসি পরিক্ষার্থী আমেনা আক্তারকে (১৯) এক বছর পূর্বে সোনারগাঁ জিআর স্কুল এন্ড কলেজ সংলগ্ন লাহাপাড়া এলাকা থেকে কয়েকজন সঙ্গীসহ অপহরণ করে জোড় পূর্বক বিয়ে করে বৈদ্যের বাজার ইউনিয়নের আনন্দবাজার এলাকার পঞ্চবটি গ্রামের ফজর আলীর ছেলে মোরসালিন। বিয়ের একমাস পর থেকে তার স্বামী আমেনাকে দেহ ব্যবসা ও পর্ণগ্রাফী ভিডিও করতে চাপ সৃষ্টি করে। তার প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় সে দেড় লাখ টাকা যৌতুকের জন্য নানা সময়ে শারিরীক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করে। স্বামীর নির্যাতনে আমেনার দুইকান দিয়ে রক্তক্ষরণ সহ নানাবিধ শারিরিক সমস্যা দেখা দেয়।


নির্যাতিত গৃহবধু আমেনা আক্তার জানান, আমার স্বামী মাদক সেবন ও বিক্রির সাথে জড়িত। তার অনৈতিক প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় সে আমাকে নানা সময়ে শারিরিক ও মানসিক নির্যাতন করতো। এরই মাঝে আমি সন্তান ধারন করলে আমার স্বামী ও শাশুড়ি আমাকে জোড়পূর্বক গর্ভপাত করায়। গত ৮ জুলাই ২০২১ তারিখে সে তাদের ভাড়াবাড়িতে আমাকে আবারো তার বন্ধুদের সাথে রাত কাটাতে বলে। আমি রাজি না হওয়ায় আমাকে এলোপাথাড়ি মারধর করার একপর্যায়ে ঘরে থাকা বটি নিয়ে আমাকে জবাই করতে উদ্ধ্যত হলে আমার ডাক চিৎকারে আশপাশের মানুষ এগিয়ে আসলে আমাকে তালাক দেওয়ার হুমকি দিয়ে চলে যায়। তার মোবাইল ফোনের ম্যাসেঞ্জার থেকে আমি জানতে পারি সে বিভিন্ন মেয়েদের প্রলোভন দেখিয়ে তাদের মাধ্যমে দেহ ব্যবসা ও পর্ণগ্রাফী তৈরি করে। বিষয়টি আমি জানার পর আমি আমার মামার বাড়িতে চলে আসি।


সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আতিকুর ইসলাম জানান, স্ত্রী’কে নির্যাতনের ঘটনায় বখাটে মোরসালিনকে ১ বছরের কারাদন্ড প্রদান করা হয়েছে।

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget