October 2021





নিউজ ডেস্ক : আসন্ন ইউনিয়ন নির্বাচনে সীমানা প্রাচীর নিয়ে জটিলতায় নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁও উপজেলার মোগরাপাড়া ও বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়নের নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করা হলে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে চলে আসে মোগরাপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী সাবেক জেলা ছাত্রলীগ সহ-সভাপতি শাহ্ মোঃ সোহাগ রনির জনপ্রিয়তা। 


রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণেই এমন মামলা দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় গণ্যমান্য ও রাজনীতিবিদরা। তারই প্রেক্ষিতে মোগরাপাড়া ইউনিয়নের  নির্বাচন স্থগিত হওয়ার পিছনে ষড়যন্ত্রের নীল নকশাকারী ও তার যথাযথ প্রমাণ সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে প্রকাশ করবেন বলে জানিয়েছেন শাহ্ মোঃ সোহাগ রনি। 



সাবেক ছাত্রলীগ নেতা সোহাগ রনি জানান, মোগরাপাড়া ইউনিয়ন নির্বাচন নিয়ে কারা নির্বাচন বন্ধ করার জন্য নীল নকশা করেছে।  তার সকল কাগজ পত্র নিয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করে ৩-৪ দিন এর মধ্যে প্রিয় সোনারগাঁও বাসিদের জানাবো।


তিনি আরো জানান, অল্প কিছুদিনের মধ্যেই মোগরাপাড়া ইউনিয়নে নির্বাচন হবে।





নিউজ ডেস্ক : নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ড’র মেম্বার পদপ্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছেন খোরশেদ আলম ফরাজী।


২৮ অক্টোবর বৃহস্পতিবার দুপুরে সোনারগাঁ উপজেলা রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয়ে তার মনোনয়ন পত্রটি দাখিল করেন।


এসময় পিরোজপুর ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ড’র  বিপুল পরিমান নেতাকর্মী তার সাথে ছিলেন। মেম্বার প্রার্থী খোরশেদ আলম ফরাজী মনোনয়ন পত্র দাখিলের পর সকলের কাছে দোয়া প্রার্থনা করেন।





নিউজ ডেস্ক : আগামী ২৮ নভেম্বর সোনারগাঁয়ের ৮ ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এরমধ্যে ৪ ইউনিয়নে লাঙল প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে জাতীয় পার্টির ৪ প্রার্থী।


শম্ভুপুরা ইউনিয়নে জাতীয় পার্টির মনোনয়ন পেয়েছেন উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি ও বর্তমান চেয়ারম্যান আবদুর রউফ, সাদিপুর ইউনিয়নে আবুল হাশেম, জামপুর ইউনিয়নে আশরাফুল ভুঁইয়া মাকসুদ ও বারদী ইউনিয়নে আ. দাইয়ান সরকার।



বুধবার রাজধানীর বনানীতে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে পার্টির চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা প্রকৌশলী গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপির কাছ থেকে তারা দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন।


এসময় উপস্থিত ছিলেন- সোনারগাঁ থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম ও ঢাকা বিভাগীয় অতিরিক্ত মহাসচিব লিয়াকত হোসেন খোকা, জাতীয় পার্টির যুগ্ম মহাসচিব ও জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোসেন, জাতীয় পার্টির প্রচার সম্পাদক মাসুদুর রহমান মাসুম, জাতীয় পার্টি নারায়ণগঞ্জ জেলা আহ্বায়ক সানাউল্লাহ সানু, সোনারগাঁ উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারন সম্পাদক আবু নাইম ইকবাল, জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টি নারায়ণগঞ্জ জেলার আহ্বায়ক গিয়াসউদ্দিন চৌধুরী, জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির সমাজ কল্যান সম্পাদক আনিসুর রহমান বাবু প্রমুখ।




নিউজ ডেস্ক  : আসন্ন ধামগড়  ইউপি নির্বাচনে আ’লীগের মনোনীত প্রার্থী নৌকার মাঝি ধামগড় ইউনিয়নের সুযোগ্য সফল বর্তমান (চেয়ারম্যান)  আলহাজ্ব মাসুম আহম্মেদ,বিপুল ভোটে বিজয়  করার ঘোষনা দিয়েছেন, ধামগড় ইউনিয়ন ৪ নং ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের সভাপতি মরহুম আবদুল রশিদ  সাহেবের সুযোগ্য পুত্র, ধামগড় ইউনিয়ন ৪ নং আওয়ামী লীগের সভাপতি পদপ্রার্থী মোঃ ইব্রাহিম খলিল হৃদয়, গনমাধ্যমে বিবৃতিতে তিনি জানান,বাংলাদেশ আ’লীগের মনোনীত ধামগড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে নৌকার মাঝি, আলহাজ্ব মাসুম আহম্মেদ, কে বিপুল ভোটে পুনরায় নির্বাচিত করতে হবে।  সকল নেতাকর্মীদের এক হয়ে, কাজ করতে হবে। ধামগড় নৌকার মাঝি মাসুম আহম্মেদ,এর বিকল্প নাই। তাই ধামগড়  ইউনিয়ন সর্বস্তরের জনগন কে, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের নৌকার মনোনিত প্রার্থী মাসুম চেয়ারম্যান কে পুনরায় আবার ও জয়যুক্ত  করে, প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা কে নৌকা উপহার দিবো ইনশাল্লাহ।  




নিউজ ডেস্ক :  বন্দর উপজেলার  মদনপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের নৌকার মনোনীত প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান আলহাজ্ব গাজী এম এ সালাম,কে পুনরায় চেয়ারম্যান হিসেবে  নির্বাচিত করতে উঠান বৈঠক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

 (২৫ অক্টোবর)  সোমবার মদনপুর  ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড এর পশ্চিম কেওঢালা এলাকায় এ নির্বাচনী উঠান বৈঠক ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। 

 সামসুদ্দিন মিয়ার সভাপতিত্বে,

 প্রধান অতিথি  উপস্থিত ছিলেন, আলহাজ্ব গাজী এম এ সালাম (চেয়ারম্যান) মদনপুর  ইউনিয়ন পরিষদ 


সভায় নেতা-কর্মীরা তাদের বক্তব্যে বলেন, ‘গাজী এম এ সালাম একজন সফল চেয়ারম্যান। করোনাকালীন সময়, ব্যক্তিগত উদ্যোগে তিনি ব্যাপক খাদ্যসহায়তা দিয়েছেন। সবকিছু যাচাই বাছাই করেই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও জননেত্রী শেখ হাসিনা আবারো গাজী এম এ সালাম কে, নৌকার প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ মোতাবেক আমরা নৌকার প্রার্থীকে বিজয়ী করতে বদ্ধপরিকর। ১১ তারিখের নির্বাচনে আমাদের মদনপুর  ইউনিয়নে বিপুল ভোটে  গাজী এম এ সালাম চেয়ারম্যান কে, আমরা আবারো চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত করবো ইনশাআল্লাহ’।


গাজী রাসেল " র সঞ্চালনায়, এসময় উপস্থিত  ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের সদস্য আলহাজ্ব আরিফুল ইসলাম আলীনূর, বঙ্গবন্ধু সৈনিকলীগের বন্দর থানার সভাপতি সাইফুল ইসলাম পলাশ,মোঃ আক্তার হোসেন সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মদনপুর ইউনিয়ন, বঙ্গবন্ধু সৈনিকলীগের মদনপুর ইউপি সভাপতি মোঃ ইসমাইল হোসেন,আলহাজ্ব আফজাল সরকার টিটু, যুগ্ম আহব্বায়ক  মেঘনা উপজেলা যুবলীগ। সাইদুল ইসলাম জুয়েল সাংগঠনিক সম্পাদক  বন্দর উপজেলা যুবলীগ,  মদনপুর ইউপি, হাফেজ পারভেজ হাসান,শেখরাসেল জাজীয় শিশুকিশোর পরিষদ, আলহাজ্ব শফিউদ্দিন মাতব্বর, জাতীয় পার্টর নেতা মোফজ্জল হোসেন ভূইয়া,৭ নং ওয়ার্ডের আব্দুল  মতিন মেম্বার, মামুনুর রশিদ  মদনপুর ইউপি ৮ নং ওয়ার্ডের মেম্বার পদপ্রার্থী, সহ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা-কর্মীরা এবং স্থানীয় শত শত জনসাধারণ উপস্থিত ছিলেন।







নিউজ ডেস্ক : নারায়ণগঞ্জ-৩ (সোনারগাঁ) আসনের সাবেক এমপি ও সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল্লাহ আল কায়সার হাসনাত এর জন্মদিন উপলক্ষ্যে তাকে প্রাণঢালা শুভেচ্ছা জানিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের সদস্য ও সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান মাসুম।


এক শুভেচ্ছা বার্তায় মাসুম জানান, ‘কায়সার ভাই তিনি আমাদের প্রিয় ও শ্রদ্ধেয় নেতা। আমরা তার দিক নির্দেশনা মোতাবেক ঐক্যবদ্ধভাবে দলের জন্য কাজ করে যাচ্ছি। সুখে-দুঃখে তিনি আমাদের পাশে আছেন এবং এভাবেই আমরা কায়সার ভাইকে পাশে চাই। আমরা কায়সার ভাইয়ের সুস্থ্যতা ও দীর্ঘায়ু কামনা করছি। তাছাড়া তার জন্মদিন উপলক্ষ্যে তাকে আন্তরিক অভিনন্দন ও প্রাণঢালা শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।




নিউজ ডেস্ক :  বন্দর উপজেলার ধামগড় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের নৌকার মনোনীত প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মাসুম আহম্মেদকে পুনরায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত করতে উঠান বৈঠক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

 (২৪ অক্টোবর) রবিবার ধামগড় ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড এর মনারবাড়ি এলাকায় এ নির্বাচনী উঠান বৈঠক ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। 

 বীর মুক্তিযোদ্ধা বাদশাহ মিয়ার সভাপতিত্বে

 প্রধান অতিথি উপস্থিত ছিলেন, আলহাজ্ব মাসুম আহম্মেদ (চেয়ারম্যান) ধামগড় ইউনিয়ন পরিষদ 


সভায় নেতা-কর্মীরা তাদের বক্তব্যে বলেন, ‘মাসুম আহম্মেদ একজন সফল চেয়ারম্যান। করোনার ২টি ধাপেই ব্যক্তিগত উদ্যোগে তিনি ব্যাপক খাদ্যসহায়তা দিয়েছেন। সবকিছু যাচাই বাছাই করেই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও জননেত্রী শেখ হাসিনা আবারো মাসুম আহম্মেদকে নৌকার প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ মোতাবেক আমরা নৌকার প্রার্থীকে বিজয়ী করতে বদ্ধপরিকর। ১১ তারিখের নির্বাচনে আমাদের ধামগড় ইউনিয়নে বিপুল ভোটে মাসুম আহম্মেদকে আমরা আবারো চেয়ারম্যান নির্বাচিত করবো ইনশাআল্লাহ’।


জাহাঙ্গির আলমের সঞ্চালনায় নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য এডভোকেট ইসহাক মিয়া, নারায়ণগঞ্জ মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি জুয়েল হোসেন, বন্দর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক শ্রম সম্পাদক সোনা মিয়া, নাসিক ২৬নং ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন আনু, ধামগড় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আলী ভূঁইয়া, সহ-সভাপতি হাজী নাসির উদ্দিন, যুগ্ম সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, অত্র ইউপি’র ৯নং ওয়ার্ড মেম্বার আমজাদ হোসেন, ধামগড় ইউনিয়ন ৯নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মুসলিম মিয়া, সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন, সহ-সভাপতি বাচ্চু মিয়া, ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রাসেল আহম্মেদ, ধামগড় ইউনিয়ন শ্রমিক লীগের সভাপতি মোশারফ মোল্লা, সাধারণ সম্পাদক গাজী খোকন,  সহ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা-কর্মীরা এবং স্থানীয় শত শত জনসাধারণ উপস্থিত ছিলেন।

 



 নিউজ ডেস্ক  : কলম ধরো জীবন গড়ো, মাদক ছাড়ো খেলা ধরো’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁওয়ের মোগরাপাড়া ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকার যুবকদেরকে খেলার মাঠ ব্যবস্থা করা সহ বিভিন্ন অনুদান দিয়ে জনগনের পাশে দাঁড়ান মোগরাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হাজী শাহ মো. সোহাগ রনি। 


শুক্রবার (২২ অক্টোবর) সকালে নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি হাজী শাহ মো. সোহাগ রনি তার নিজস্ব অফিসে মোগরাপাড়া ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকা থেকে আগত অসহায় মানুষদের কে সহায়তা প্রদান করেন। সহায়তার মধ্যে মোগরাপাড়া ইউপির ৮নং ওয়ার্ডের দলদার গ্রামের একঝাঁক তরুণকে খেলাধুলার জন্য মাঠ সংগ্রহ করে এক বছরের জন্য মাঠ ভাড়া করে দেন। 



এছাড়া ৪নং ওয়ার্ডের বিন্নিপাড়া গ্রামের মোঃ শফিউদ্দিন এর চোখের অপারেশন ও তাঁর মেয়ের বিয়ের জন্য নগদ অর্থ প্রদান, ৮নং ওয়ার্ডের আশ্রব্দী গ্রামের বিপ্লব দাসের কিডনি রোগের অপারেশনের জন্য নগদ অর্থ প্রদান ও ৪নং ওয়ার্ডের কাবিলগঞ্জ গ্রামের দুলাল দাস এর অসুস্থ এর জন্য নগদ অর্থ প্রদান করেন হাজী শাহ্ মোঃ সোহাগ রনি।



সাবেক ছাত্র নেতা শাহ মোঃ সোহাগ রনি জানান, আমার জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত আল্লাহ যদি আমাকে তৌফিক দেন তাহলে অসহায় মানুষের পাশে থাকবো। মোগরাপাড়া ইউনিয়নের জনগন যেকোন বিপদে আপদে আমাকে পেয়ে আসছে আগামীতেও পাবেন। কোন ষড়যন্ত্রই আমাকে এই কাজ থেকে দূরে রাখতে পারবে না।

 




নিউজ ডেস্ক  ঃ আসন্ন মদনপুর ইউপি নির্বাচনে আ’লীগের মনোনীত প্রার্থী নৌকার প্রতিকধারী মদনপুর ইউনিয়ন  সুযোগ্য চেয়ারম্যান আলহাজ্ব গাজী এমএ সালামকে পুনরায় আবার ও  নির্বাচিত করতে, বন্দর থানা বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগ সভাপতি সাইফুল ইসলাম  পলাশ সকল বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগ কর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হতে আহ্বান জানিয়েছেন।বন্দর উপজেলা পরিষদে ইউপি নির্বাচনের ১১ নভেম্বর গাজী এম এ সালাম  কে বিজয়ী করার লক্ষ্যে গনমাধ্যমে এক বিবৃতির মাধ্যমে এ আহ্বান জানান।


বিবৃতিতে তিনি জানান,বাংলাদেশ আ’লীগের মনোনীত মদনপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে নৌকার মাঝি, গাজী এমএ সালাম কে বিপুল ভোটে নির্বাচিত করতে হবে। এজন্য বন্দর উপজেলা  সৈনিক লীগ সকল নেতাকর্মীদের এক হয়ে, কাজ করতে হবে। মদনপুরে নৌকার মাঝি গাজী এমএ সালামের বিকল্প নাই। তাই মদনপুর ইউনিয়ন সর্বস্তরের জনগন ও নেতাকর্মীদের কে, আমি আমার সৈনিক লীগ পক্ষে  থেকে আহবান  করছি, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের নৌকার মনোনিত প্রার্থী গাজী এম এ সালাম চেয়ারম্যান কে পুনরায় আবার ও জয়যুক্ত  করে, প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা কে নৌকা উপহার দিবো ইনশাল্লাহ । তাই আবারও উন্নয়ন আবারও গাজী এম এ সালাম চেয়ারম্যান। 




নিউজ ডেস্ক : নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের সদস্য বর্ষপুর্তি উপলক্ষে স্বেচ্ছাসেবক লীগের ফুলেল শুভেচ্ছা। 

নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের ৬ নং ওয়ার্ডের উপ নির্বাচনে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বীতায় সদস্য  নির্বাচিত হওয়ার ১ বছর পুর্তি উপলক্ষে, বন্দর উপজেল মদনপুর ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের পক্ষ থেকে নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা পরিষদের সদস্য আলহাজ্ব  গাজী আরিফুল ইসলাম আলীনুর কে ফুলেল শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন। 


২০শে অক্টোবর বুধবার বিকেলে তার নিজ কার্যলয় জেলা পরিষদের সদস্য গাজী আরিফুল ইসলাম আলীনুর কে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়। 

এসময় উপস্থিত ছিলেন, বন্দর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি হাসানুজ্জামান, বন্দর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের  সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আলী।

মদনপুর ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোঃ আক্তার হোসেন। 

মদনপুর ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আবুল  কালাম,সহ সাধারণ সম্পাদক লুৎফর রহমান।

 আরো উপস্থিত ছিলেন গাজী শাহাআলম যুবলীগ নেতা, আমির হোসেন সহ স্বেচ্ছাসেবক লীগের  অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ। 




নিউজ ডেস্ক : সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস রুখে দিয়ে শান্তি প্রতিষ্ঠায় নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের নেতা কর্মীরা শান্তি ও সম্প্রীতি র‍্যালীতে অংশ গ্রহণ করেন। 


মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) বিকেলে উপজেলা আওয়ামী লীগ আহবায়ক কমিটির যুগ্ম আহবায়ক ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমান মাসুমের নির্দেশনায় ও উপজেলা যুবলীগ সভাপতি রফিকুল ইসলাম নান্নুর নেতৃত্বে শান্তি ও সম্প্রীতি র‍্যালীটি গুলিস্তানে আওয়ামী লীগ পার্টি অফিস থেকে শুরু করে দোয়েল চত্বর হয়ে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে বিশাল সমাবেশে মিলিত হয়৷


এসময় উপস্থিত ছিলেন, সোনারগাঁও আওয়ামী যুবলীগের বিপ্লবী সাধারণ সম্পাদক জনাব আলী হায়দার, উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ, সাংগঠনিক সম্পাদক আরিফ,উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সহ-সভাপতি নজরুল ইসলাম, মোগরাপাড়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সজীব, মোগরাপাড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সাগর, যুবলীগ নেতা হৃদয় প্রধান, সজীব, মাহবুব, ও কামাল ভান্ডারী সহ উপজেলা আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ আওয়ামীলীগের সকল সহযোগী অংগ সংগঠন এর নেত্রীবৃন্দদের যোগদান করেন।




নিউজ ডেস্ক : নারায়ণগঞ্জ বন্দর উপজেলা মদনপুর ইউনিয়নে যুব সমাজের উদ্যোগে নৌকার মাঝি মদনপুর ইউনিয়নের সুযোগ্য চেয়ারম্যান আলহাজ্ব গাজী এম এ সালাম কে গনসংবর্ধনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

১৯ অক্টোবর মঙ্গলবার  পুর্ব কেওঢালা এলাকায় নাগিনা জোহা উচ্চ বিদ্যালয় এ গনসংবর্ধনা দেওয়া হয়। এসময় বন্দর উপজেলা শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদ এর মদনপুর ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ও মদনপুর ইউপি ৮ নং ওয়ার্ডের মেম্বার পদপ্রার্থী মামুনুর রশীদ  বলেন,বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী মদনপুর  ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান (চেয়ারম্যান) আলহাজ্ব গাজী এম এ সালাম চেয়ারম্যান  কে,

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’ আওয়ামী লীগের মনোনিত প্রার্থী হিসেবে নৌকার বৈঠা হাতে তুলে দিয়েছেন, তাই আমরা এই নৌকার মাঝি গাজী এম এ সালাম কে মদনপুর ইউনিয়ন বাসী১১ নভেম্বর বিজয়ের মালা গলায় পরিয়ে মদনপুর ইউনিয়ন বাসী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কে নৌকা উপহার দিবো, 

তিনি আরো বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কঠোর হুশিয়ারী আছে যে নৌকার বিদ্রোহ যে করবে তাকে দল থেকে বহিস্কার করা হবে।  যদি নৌকার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র হয় তাহলে দাঁতভাঙা জবাব দিবে মদনপুর ইউনিয়ন আ’লীগ।আমি বলবো আমরা যারা আওয়ামী লীগের  কর্মী বঙ্গবন্ধুর  আদর্শের সৈনিক  সবাই। নৌকার পক্ষে কাজ করে  নৌকার মাঝি গাজী এম এ সালাম, কে পুনরায় আবার জয়যুক্ত করার  আহবায়ন করছি। সেই সাথে আমাদের নেত্রী  মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা সুস্বাস্থ্য কামনা করছি, 

মদনপুর ইউনিয়ন জাতীয় পার্টি  সাধারণ সম্পাদক গোলাপ হোসেন ভুইয়া সভাপতিত্বে 

প্রধান অতিথি উপস্থিত ছিলেন, আলহাজ্ব গাজী এম এ সালাম(চেয়ারম্যান) মদনপুর ইউনিয়ন । 

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা পরিষদের সদস্য আলহাজ্ব  গাজী আরিফুল ইসলাম আলীনুর

 বন্দর উপজেলা শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদ এর সভাপতি হাফেজ পারভেজ এর সসঞ্চালনায়। 

 উপস্থিত  ছিলেন,বিশিষ্ট শিল্পপতি, মমিনুল্লাহ খান,আমান উল্লাহ আমান,হাজী আবুল কাসেম,আওয়ামীগ নেতা মজিবুর রহমান। 

এছাড়া আরো উপস্থিত ছিলেন

মদনপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে  ৭,৮,ও ৯ ওয়ার্ডের পুরুষ ও মহিলা প্রর্থীগন।

আয়োজনে,পুর্ব কেওঢালা যুব সমাজের পক্ষে,হানিফ কন্ট্রাক্টর, আবুল,মুক্তার, ফজল,।




নিউজ ডেস্ক : নারায়ণগঞ্জ বন্দর উপজেলা মদনপুর ইউনিয়নে যুব সমাজের উদ্যোগে নৌকার মাঝি মদনপুর ইউনিয়নের সুযোগ্য চেয়ারম্যান আলহাজ্ব গাজী এম এ সালাম কে গনসংবর্ধনা।


১৯ অক্টোবর মঙ্গলবার বিকাল ৩ ঘটিকায় পুর্ব কেওঢালা এলাকায় যুব সমাজের উদ্যোগে এ গনসংবর্ধনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

মদনপুর ইউনিয়ন জাতীয় পার্টি  সাধারণ সম্পাদক গোলাপ হোসেন ভুইয়া সভাপতিত্বে 


প্রধান অতিথি উপস্থিত ছিলেন, আলহাজ্ব গাজী এম এ সালাম(চেয়ারম্যান) মদনপুর ইউনিয়ন পরিষদ,  বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা পরিষদের সদস্য আলহাজ্ব  গাজী আরিফুল ইসলাম আলীনুর

এসময়ে প্রধান অতিথি সালাম বক্তব্যে বলেন, আসন্ন মদনপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থীদের আমি অনুরোধ করছি তারা যেন নির্দিষ্ট সময়ের আগেই তাদের বিদ্রোহী প্রার্থীতা প্রত্যাহার করে নেয়৷ অন্যথায় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ অমান্য করায় তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থনেওয়া  হবে। 

পুর্ব কেওঢালা যুব সমাজের  আয়োজিত, 


গন সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি আরো বলেন প্রধানমন্ত্রী আমাকে ভালোবেসে নৌকা প্রতিক দিয়েছেন আমরা আওয়ামীলীগ পরিবার সবাই মিলে নির্বাচনে আমাকে কে বিজয়ী করবেন। নৌকার বিরোধীতাকারিদের কোনো ছাড় দেওয়া হবে না৷ বন্দর উপজেলা শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদ এর সভাপতি হাফেজ পারভেজ এর সসঞ্চালনায়। 

 

আরো উপস্থিত  ছিলেন,বিশিষ্ট শিল্পপতি, মমিনুল্লাহ খান,আমান উল্লাহ আমান,হাজী আবুল কাসেম,আওয়ামীগ নেতা মজিবুর রহমান। মদনপুর ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোঃ আক্তার হোসেন,সাইফুল ইসলাম পলাশ সভাপতি বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগ, যুবলীগ নেতা শাহআলম, গাজী রাসেল, আওয়ামী লীগ নেতা জুয়েল ভুঁইয়া, 

এছাড়া আরো উপস্থিত ছিলেন

মদনপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে  ৭,৮,ও ৯ ওয়ার্ডের পুরুষ ও মহিলা প্রর্থীগন।

এসময় সকল নেতৃবৃন্দ এম এ সালাম কে বিপুল ভোটে নির্বাচিত করার জন্য অঙ্গিকার বদ্ধ হয়।

আয়োজনে,পুর্ব কেওঢালা যুব সমাজের পক্ষে,হানিফ কন্ট্রাক্টর, আবুল,মুক্তার, ফজল,।

 



নিউজ ডেস্ক  :


আসন্ন সোনারগাঁও উপজেলার শম্ভুপুরা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন ফরম ক্রয় করলেন সোনারগাঁও উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি আব্দুল কাদির জয়।


সোমবার (১৯ অক্টোবর) দুপুরে ১টায় আওয়ামী লীগের ধানমন্ডি পার্টি অফিস থেকে তিনি এ মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন।


ফরম সংগ্রহের সময় উপস্থিত ছিলেন, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সমাজ সেবক হাজী বিল্লাল বেপারী, শম্ভুপুরা ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ড মেম্বার সাবেদ আলী, শম্ভুপুরা ১নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি আমিনুল, আওয়ামীলীগের নেতা গাজী ছালেকসহ নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।


এই সময় আব্দুল কাদির জয় বলেন আগামী ২৮ নভেম্বর শম্ভুপুরা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সকল শ্রেণী-পেশার মানুষের দোয়া ও সমর্থন নিয়ে আমি চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন ফরম ক্রয় করেছি এবং প্রচার প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছি। আমি নির্বাচিত হলে সর্বস্তরের মানুষদের সাথে নিয়ে শম্ভুপুরা ইউনিয়নকে একটি মডেল ইউনিয়ন হিসেবে উপহার দিবো।

 




নিউজ ডেস্ক : নারায়ণগঞ্জ বন্দর উপজেলা শেখ রাশেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদের উদ্যোগে শেখ রাশেল দিবস পালিত হয়েছে,

সোমবার (১৮ই অক্টোবর) মদনপুর এলাকায় শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে আয়োজিত দোয়া ও কেক কেটে  অনুষ্ঠানটি, পালন করা হয়,বন্দর উপজেলা  মদনপুর ইউনিয়নের  সুযোগ্য চেয়ারম্যান আলহাজ্ব গাজী এম এ সালাম  এর সভাপত্বিতে, প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আলহাজ্ব আব্দুল হাই।


উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক, জেলা পরিষদের সদস্য, গাজী আরিফুল ইসলাম আলীনূর। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন, বন্দর উপজেলা শেখ রাসেল শিশু কিশোর পরিষদ এর সভাপতি  এইচ এম পারভেজ।


এসময় প্রধান অতিথি আব্দুল হাই বলেন ,  সেদিন বঙ্গবন্ধু'র সর্বকনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেল ফেরাশতার মত একটি নিষ্পাপ শিশু ছিলেন।  ৭৫ এর সেই কালো রাতে শেখ রাসেল অনেক আকুতি মিনতি করেও পাড় পায়নি। খন্দকার মোশতাকদের পিচাশ মন সেদিন গলে নি। বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যার পর সেদিনের ছোট্ট রাসেলের মাথায় সেদিন বুলেটের আঘাতে হত্যা করে সেই জিয়াউর রহমানের দোসররা।আসলে শেখ রাসেলের মাঝে বঙ্গবন্ধুর সব গুণেরই পূর্বাভাস ছিল।  


শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে আয়োজিত দোয়া ও কেক কাটার অনুষ্ঠানে, তিনি এসব কথা বলেন, 

এসময় তিনি আসন্ন ইউপি নির্বাচন প্রসঙ্গে বলেন, যারা নৌকার বিদ্রোহী প্রার্থী তাদের কখনোই দলে মেনে নেয়া হবে না। আমি শুনেছি মদনপুরে এক শ্রমিকলীগ নেতা আ'লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী।  আমি তাকে বলব আগামী ২৬ অক্টোবর এর মধ্যে আপনি মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার করুন।  না হয় দলের নিয়মানুযায়ী আপনাকে বহিস্কার করা হবে।

  

আরো উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ জেলা শেখ রাসেল শিশু কিশোর পরিষদ এর সভাপতি  ওবায়দুল্লাহ খান,বন্দর থানা শেখ রাসেল শিশু কিশোর পরিষদ এর মদনপুর ইউনিয়ন সাধারণ সম্পাদক,মামুনূর রশিদ।বাংলাদেশ স্বেচ্ছাসেবক লীগের মদনপুর ইউনিয়নের সভাপতি মোঃ আক্তার হোসেন, শাহাআলম যুবলীগ নেতা, হানিফ কন্টাকদার, সহ অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।






নিউজ ডেস্ক : আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ  নির্বাচনে ধামগড় ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের  মননিত  চেয়ারম্যান প্রার্থী, সফল চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মাসুম আহমেদ এর পক্ষে  উঠান বৈঠক ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে ।


সোমবার ১৮ অক্টোবর বিকেলে ধামগড় ইউনিয়ন ৭ নং ওয়ার্ড এর বুনিয়াদি এলাকায় এই উঠান বৈঠক ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উক্ত অনুষ্ঠানে বক্তারা  চেয়ারম্যান মাসুম এর গত পাঁচ বছরে ইউনিয়নের বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কাজ ও  সফলতা নিয়ে আলোচনা করেন এবং আগামী ১১ ই নভেম্বর  নির্বাচনে বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান মাসুমকে পুনরায়  বিজয়ী করার আহ্বান করেন।

অনুষ্ঠানে চেয়ারম্যান মাসুম আহমেদ বলেন, নৌকা কারো নয় নৌকা একমাত্র শেখ হাসিনার, আপনাদের ভালোবাসায় শেখ হাসিনা  আমাকে নৌকা দিয়েছেন তাই  বলতে চাই আওয়ামী লীগ করবেন আর নৌকার বিরোধিতা  করবেন এটা কখনোই মেনে নেওয়া হবে না। আমি আপনাদের সন্তান শেষ নিঃশ্বাস পর্যন্ত আপনাদের সেবা করে যেতে চাই।


সমাজসেবক জাহাঙ্গীর আলমের সঞ্চালনায় আরো উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটির সদস্য ইসহাক মিয়া,নাসিক ২৬ নং ওয়ার্ডের সাবেক   কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন আনু, বন্দর থানা যুবলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মনির মাস্টার,৯ নং ওয়ার্ড মেম্বার আমজাদ হোসেন,নয়ামাটি  পূর্ব পাড়া জামে মসজিদের সভাপতি মন্জু মিয়াঁ, ৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি সেলিম মিয়া, ৯নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন প্রমুখ।





নিউজ ডেস্ক : দৈনিক বর্তমান কথা পত্রিকার সাংবাদিক এসএম মনির হোসেনের জন্মদাত্রী মা মোছা. শাফাতুন নেছার মৃত্যু বরণ করেছেন। 

ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। 


সোমবার (১৮ অক্টোবর) ভোর ৫.৫০ মিনিটে তার নিজ বাসস্থান রতনপুরে ইন্তেকাল করেছেন। তিনি মরহুম আয়েব আলী বেপারীর স্ত্রী এবং বাংলাদেশ ইউপি সচিব সমিতির সাধারণ সম্পাদক দেল ওয়ার হোসেনের মা। মৃত্যুকালে তার বয়স ছিলো ১০৬ বছর।



সাংবাদিক এসএম মনির হোসেনের মা শাফাতুন নেছার মৃত্যুতে সোনারগাঁও রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি আব্দুস সাত্তার প্রধান, উপদেষ্টা এমএম সালাহউদ্দিন মোল্লা, সিনিয়র সহ-সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান মাসুম, সেক্রেটারি দ্বীন ইসলাম অনিক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান রানা সহ পুরো পরিবার শোক প্রকাশ করেন এবং মরহুমার রুহের মাগফেরাত কামনা করেন। 



মরহুমা মৃত্যুকালে চার ছেলে ও তিন মেয়েসহ বহু গুণগ্রাহী দুনিয়াতে রেখে যান। মরহুমার জানাজার নামাজ সকাল ১০ ঘটিকায় রতনপুর ঈদগাহে অনুষ্ঠিত হয়েছে।





নিউজ ডেস্ক : আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জ  বন্দর উপজেলার ৫টি ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের  মনোনিত  চেয়ারম্যান প্রার্থী, দুইজন স্বতন্ত্র প্রার্থী ও জাতীয় পার্টির তিনজনসহ মোট ৯ জন  মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। 


১৭ই অক্টোবর রোববার মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষদিনে মোট ৯ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী রির্টানিং কর্মকর্তার কাছে এ মনোনয়নপত্র দাখিল করেন।


এসময় নাঃগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগ  সভাপতি আব্দুল  হাই ও বন্দর উপজেলা আওয়ামীলীগ এর সভাপতি এবং উপজেলা চেয়ারম্যান   বীরমুক্তিযোদ্ধা এম এ রশিদ   এর উপস্থিতিতে  দলীয় প্রার্থীরা  কয়েক হাজার নেতাকর্মী নিয়ে উৎসবমুখর পরিবেশে  উপজেলা চত্ত্বরে নৌকার স্লোগান দিয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেন।


এদিকে বন্দর, মুছাপুর ও কলাগাছিয়া ইউনিয়ননে লাঙ্গল মার্কায়  রানিং  চেয়ারম্যান ও মনোনয়ন দাখিল করেছেন।

অন্যদিকে মদনপুর ও ধামগড় ইউনিয়নে ২ জন স্বতন্ত্র প্রার্থী মনোনয়ন দাখিল করেন।

নৌকায় মার্কায় ধামগড়ে  মাসুম আহম্মেদ, মদনপুরে গাজী এম এ সালাম, বন্দরে মুক্তার হোসেন,কলাগাছিয়ায় কাজিমউদ্দিন, মুছাপুরে মজিবুর রহমান।

লাঙ্গলমার্কায়, মুছাপুরে মাকসুদ হোসেন, কলাগাছিয়ায় দেলোয়ার প্রধান,ও বন্দরে আহসান  এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী  ধামগড়ে উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা আজিজুল হক আজিজ,   মদনপুরে মদনপুর ইউনিয়ন শ্রমিক লীগ সভাপতি

 শেখ রুহুল আমিন   । 


আগামী ১১ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে বন্দর উপজেলার ৫ টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন। এ নির্বাচনে ২০১০৮৯  জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। নির্বাচনকে ঘিরে সব ধরনের প্রস্তুতির কথা জানায় নির্বাচন কর্মকর্তা ও পুলিশ।


বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)  দীপক চন্দ্র সাহা জানান, উপজেলা প্রশাসন ও আমাদের পক্ষ্য থেকে বন্দর বাসিকে  একটি ঝামেলামুক্ত অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন উপহার দিব ইনশাআল্লাহ । তবে কোন ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি ছাড়াই সকল ইউনিয়নের চেয়ারম্যাান ও সাধারণ এবং সংরক্ষিত নারী সদস্য প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন।




 নিউজ ডেস্ক : নারায়ণগঞ্জ বন্দর উপজেলার ধামগড় ইউনিয়ন ১১ নভেম্বর  নির্বাচনে পুনরায় আবারো ধামগড়ে ৫ নং ওয়ার্ডে হাবিবুর রহমান হাবিব কে মেম্বার হিসেবে দেখতে চায় ৫ নং ওয়ার্ডের সর্বস্তরের জনগন। জনগণ চায় উন্নয়ন। আর সেই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রেখেছেন ধামগড় ইউনিয়ন ৫নং ওয়ার্ডের একজন পরিশ্রমি  ইউপি সদস্য, হাবিবুর রহমান। তিনি এলাকার উন্নয়নে নির্বাচিত হবার পড় রাস্তাঘাট উন্নয়নে রেখেছেন বিরাট ভূমিকা এমনকি নিজস্ব অর্থায়নেও রাস্তাঘাট তৈরি করেছেন। নাগরিকত্ব সুবিধা সুনিশ্চিত করতে জন্ম নিবন্ধন পত্র, মৃত্যু সার্টিফিকেট, ওয়ারিশ সার্টিফিকেট, বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা সহ সর্বপ্রকার সুবিধা জনগণকে যথোপযুক্ত ভাবে দিতে চেষ্টা করেছেন। করোনাকালীন সময় যোদ্ধা হয়ে মানুষের পাশে ছিলেন। 


ইউপি হাবিবুর রহমান  সম্পর্কে ধামগড় ৫নং ওয়ার্ডের জনগণ বলেন,  হাবিবুর রহমান  একজন সত নিষ্ঠাবান ব্যাক্তি, মানুষ গড়ার কারিগড় আমাদের ওয়ার্ডে রাস্তাঘাট উন্নয়নসহ যাবতীয় সুবিধা তিনি বিগত সময়ে দিয়েছেন। এলাকার বিচার সালিশি সুষ্ঠুভাবে করেছেন। যেকোনো বিপদে আমরা তাকে পাশে পেয়েছি। তার মত একজন পরিশ্রমি  জনদরদি ইউপি সদস্য আমরা পুনরায় নির্বাচিত করতে চাই। আমাদের ৫ নং ওয়ার্ডটিকে উন্নয়নের রোল মডেলে পরিণত করতে তার মতো একজন সুদক্ষ ইউপি সদস্য  আমরা এই ওয়ার্ডে আবারো  নির্বাচিত করতে চাই। তাই আবারো উন্নয়ন  আবারো হাবিবুর রহমান হাবিব মেম্বার । 

আসন্ন নির্বাচন সম্পর্কে হাবিবুর রহমানের  কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার ৫ নং ওয়ার্ড এর জনগণ অত্যন্ত বেশি। পুনরায় আবারও নির্বাচিত হলে সর্বপ্রথম আমার ওয়ার্ডের বাজেট বৃদ্ধির জন্য আবেদন করব। যেন জনগণ তাদের প্রাপ্য অধিকার সুনিশ্চিত ভাবে পায়। আমি আমার নির্বাচনী ইশতেহার অনুযায়ী মানুষের মাঝে সেবা দিয়েছি। যে সকল কাজ অসমাপ্ত রয়েছে তা সমাপ্ত করার লক্ষ্যে আমি আবার পুনরায় নির্বাচিত হতে চাই। আমি কথা দিচ্ছি, আমি নির্বাচিত হলে আমার ৫নং ওয়ার্ড টিকে একটি মডেল ওয়ার্ডে রূপান্তরিত করব। যে সকল রাস্তাগুলোতে পানি ওঠে ওই রাস্তাগুলোকে উঁচু করে পিচ ঢালাই করার ব্যবস্থা নেব। আমি নির্বাচিত হবার পর মাদক, ইভটিজিং, কিশোর গ্যাং নির্মূলে সর্বসময় কাজ করেছি। নির্বাচিত হলে এ দিকে আরো বেশি সুনজর দেব। ইউনিয়ন পরিষদের বাজেট অনুযায়ী স্কুল-কলেজের উন্নয়ন সহ একটি পরিচ্ছন্ন ওয়ার্ড গড়ে তুলবো। আসন্ন নির্বাচনে আমি আমার ওয়ার্ড বাসীর কাছে জানাই আমার নির্বাচনী সালাম। আমি সকলের দোয়া প্রার্থী। ইনশাআল্লাহ জনগণের দোয়া ও ভালবাসায় আমি শতভাগ সুনিশ্চিত পুনরায় নির্বাচিত হব।




নিউজ ডেস্ক : নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে চেঙ্গাইন এলাকায় সাইফুল ইসলাম (৪৮) নামে এক ব্যবসায়ীকে কাঁচপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোশারফ ওমর সংঘবদ্ধ একটি সন্ত্রাসী দল নিয়ে মারপিট করে অপহরণ করে নেয়ার চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় গতকাল শনিবার দুপুর ১টার দিকে অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যান মোশারফ ওমরকে গ্রেফতারের দাবিতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কাঁচপুর বাস স্ট্যান্ডে এলাকার নারী-পুরুষ ও ব্যবসায়ীরা মিলে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে। 

মানববন্ধন চলাকালে স্থানীয় ব্যবসায়ীরা বক্তব্যে বলেন, উপজেলার কাঁচপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোশারফ ওমর একজন সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ, দখলবাজ ও মাদক ব্যবসায়ী। গত মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কাঁচপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোশারফ ওমরের নেতৃতে একদল সন্ত্রাসীরা কাঁচপুর উত্তরপাড়া গ্রামের মৃত হাজি আব্দুল মান্নানের ছেলে সাইফুল ইসলামকে তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ঢুকে মারপিট করে আহত করে এবং তাকে অপহরণ করে নেয়ার উদ্দেশে জোর পূর্বক একটি গাড়িতে তুলে নেয়ার চেষ্টা করারও অভিযোগ। পরে ওই ঘটনায় ১২ অক্টোবর মঙ্গলবার রাতে ব্যবসায়ী সাইফুল ইসলাম নিজে বাদি হয়ে চেয়ারম্যান মোশারফ ওমর (৫০) ও মো: কবির (৫২) সহ অজ্ঞাত ৩-৪জনকে আসামী করে সোনারগাঁও থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করে। পুলিশের কাছে অভিযোগ করার ৪দিন অতিবাহিত হলেও থানা পুলিশ কোন ব্যবস্থা না নেয়ায় জীবনের নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছে। এদিকে ব্যবসায়ী সাইফুল ইসলাম জানান, ইউপি চেয়ারম্যান মোশারফ ওমরের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করার পর থেকেই গাড়ি নিয়ে তার সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসী দল নিয়ে মোহরা দিচ্ছে। চেয়ারম্যান মোশারফ ওমর ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীর ভয়ে পরিবারের সবাইকে নিয়ে জীবনের নিরাপত্তাহীনতার দিন যাপন করছে। 

এ ব্যাপারে সোনারগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ মো. হাফিজুর রহমান জানান, আমি কাঁচপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোশারফ ওমরের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি, যা তদন্ত চলছে, দ্রুত ব্যবস্থা নিবো।


                                                                        



নিউজ ডেস্ক : বন্দর উপজেলা মদনপুর  ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের নৌকার মনোনিত, প্রার্থী  বর্তমান চেয়ারম্যান আলহাজ্ব গাজী এম এ সালাম কে  সমর্থন উপলক্ষে মদনপুর ইউপি স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আক্তার হোসেন নেতৃত্বে বিজয় মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

 মদনপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও আ’লীগের মনোনীত পূণরায় চেয়ারম্যান প্রার্থী এম এ সালামকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়ে আনুষ্ঠানিক সমর্থন জানিয়েছেন স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতৃবৃন্দ । শুক্রবার সন্থ্যায় মদনপুর এলাকায় গাজী এম এ সালামকে সমর্থণ দিতে আ’লীগ,যুবলীগ,ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, কৃষক লীগ, শ্রমিক লীগ সহ, সহযোগী সংগঠনের আয়োজিত দোয়া অনুষ্ঠানেে এ শুভেচ্ছা জানানো হয়।


এ সময় উপস্থিত ছিলেন, বন্দর উপজেলা সিনিয়র সহ সভাপতি হাসানুজ্জামান, বন্দর উপজেলা সাধারন সম্পাদক আঃ আলিম, মদনপুর ইউপি স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আক্তার হোসেন, ধামগড় ইউপি  স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোঃ সানোয়ার হোসেন বিপ্লব,মদনপুর ইউপি স্বেচ্ছাসেবক লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি আজিজুল ইসলাম তনময়,মদনপুর ইউপি স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল, কালাম সকল সহ স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন । 





নিউজ ডেস্ক : বন্দর উপজেলা মদনপুর  ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের নৌকার মনোনিত, প্রার্থী  বর্তমান চেয়ারম্যান আলহাজ্ব গাজী এম এ সালাম কে  সমর্থন উপলক্ষে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল  অনুষ্ঠিত হয়েছে। 


শুক্রবার ১৫ ই অক্টোবর বাদ মাগরিবের নামাজ শেষে মদনপুর ইউনিয়ন বাসস্ট্যান্ড এলাকায় আওয়ামী লীগের নৌকার মনোনিত প্রার্থী ,বর্তমান চেয়ারম্যান আলহাজ্ব গাজী এম এ সালাম কে  সমর্থন উপলক্ষে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল  অনুষ্ঠিত হয়।


বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী ও মদনপুর ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান আলহাজ্ব গাজী এম এ সালাম বলেছেন,প্রথমেই কৃতজ্ঞতা  প্রকাশ করি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র প্রতি তিনি আমাকে সম্মান দিয়েছেন।  আমাকে নৌকার বৈঠা হাতে তুলে দিয়েছেন। আমি বলতে চাই এটা আমার বড় পাওয়া। এই মদনপুর ইউনিয়ন আ’লীগ এর ঘাঁটি।  যুগের পর যুগ এখানকার মানুষ বঙ্গবন্ধুকে ভালোবেসে আ’লীগের সাথে জড়িত।  আজকে এখানে আমারা সবাই একতাবদ্ধ রয়েছি।  আমাদের এই একানিষ্ঠ কাজে জয় এবার সুনিশ্চিত।  আমরা সবাই যদি এক থাকতে পারি তাহলে বিপুল ভোটে জয়লাভ করব। 


তিনি আরো বলেন,  আমরা সবাই একই দলের রাজনীতি করি। যদি এখানে নৌকার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র হয় তাহলে দাঁতভাঙা জবাব দিবে মদনপুর আ’লীগ। আমার বড় আরজু রহমান ভূইয়া তিনিও নৌকা চেয়েছেন কিন্তু দল আমাকে দিয়েছে। আমি উনাকেও সম্মান করি।  তিনি যেন আমার সাথে কাজ করেন। নৌকার পক্ষে কাজ করেন।


অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন, মদনপুর আ’লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মহিত ভূঁইয়া।এসময় উপস্তিত ছিলেন,  বন্দর থানা আ’লীগ নেতা হাবিবুর রহমান, নাজিম উদ্দিন, থানা যুবলীগ নেতা সাইদুল ইসলাম জুয়েল, আ ‘লীগ নেতা আমান মিয়া, যুবলীগ নেতা রফিকুল ইসলাম, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি নাজমুল হাসান আরিফ, সহ-সভাপতি শেখ কামাল,জেলা পরিষদ সদস্য আরিফুল ইসলাম আলিনুর,সাইফুল ইসলাম পলাশ সভাপতি বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগ, মদনপুর ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোঃ আক্তার হোসেন,মদনপুর ইউনিয়ন শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক  আল মামুন,  যুবলীগ নেতা শাহআলম, গাজী রাসেল,৮ নং ও ওয়ার্ডের মেম্বার  পদপ্রার্থী মামুনুর রশিদ।সহ অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।


 




 নিউজ ডেস্ক : নারায়ণগঞ্জ বন্দর উপজেলার ধামগড় ইউনিয়নের নির্বাচনে পুনরায় আবারো ধামগড়ে ফয়েজুর রহমান ফয়েজ মোল্লা কে মেম্বার হিসেবে দেখতে চায় ২ নং ওয়ার্ডের সর্বস্তরের জনগন। জনগণ চায় উন্নয়ন। আর সেই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রেখেছেন ধামগড় ইউনিয়ন ২নং ওয়ার্ডের একজন পরিশ্রমি  ইউপি সদস্য,ফয়েজুর  রহমান ফয়েজ, তিনি এলাকার উন্নয়নে নির্বাচিত হবার পর থেকে রাস্তাঘাট উন্নয়নে রেখেছেন বিরাট ভূমিকা এমনকি নিজস্ব অর্থায়নেও রাস্তাঘাট তৈরি করেছেন। নাগরিকত্ব সুবিধা সুনিশ্চিত করতে জন্ম নিবন্ধন পত্র, মৃত্যু সার্টিফিকেট, ওয়ারিশ সার্টিফিকেট, বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা সহ সর্বপ্রকার সুবিধা জনগণকে যথোপযুক্ত ভাবে দিতে চেষ্টা করেছেন। করোনাকালীন সময় যোদ্ধা হয়ে মানুষের পাশে ছিলেন। 


ইউপি সদস্য  ফয়েজুর রহমান  সম্পর্কে ধামগড় ২নং ওয়ার্ডের জনগণ বলেন,   ফয়েজ মেম্বার একজন সত নিষ্ঠাবান ব্যাক্তি, মানুষ গড়ার কারিগড় আমাদের ওয়ার্ডে রাস্তাঘাট উন্নয়নসহ যাবতীয় সুবিধা তিনি বিগত সময়ে দিয়েছেন। এলাকার বিচার সালিশি সুষ্ঠুভাবে করেছেন। যেকোনো বিপদে আমরা তাকে পাশে পেয়েছি। তার মত একজন পরিশ্রমি  জনদরদি ইউপি সদস্য আমরা পুনরায় নির্বাচিত করতে চাই। আমাদের ধামগড় ২ নং ওয়ার্ডটিকে উন্নয়নের রোল মডেলে পরিণত করতে তার মতো একজন সুদক্ষ ইউপি সদস্য  আমরা এই ওয়ার্ডে আবারো  নির্বাচিত করতে চাই। তাই আবারো উন্নয়ন  আবারো ফয়েজুর রহমান ফয়েজ মেম্বার । 

আসন্ন নির্বাচন সম্পর্কে ফয়েজুর রহমান ফয়েজের  কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, পুনরায় আবারও নির্বাচিত হলে সর্বপ্রথম আমার ওয়ার্ডের বাজেট বৃদ্ধির জন্য আবেদন করব। যেন জনগণ তাদের প্রাপ্য অধিকার সুনিশ্চিত ভাবে পায়। আমি আমার নির্বাচনী ইশতেহার অনুযায়ী মানুষের মাঝে সেবা দিয়েছি। যে সকল কাজ অসমাপ্ত রয়েছে তা সমাপ্ত করার লক্ষ্যে আমি আবার পুনরায় নির্বাচিত হতে চাই। আমি কথা দিচ্ছি, আমি নির্বাচিত হলে আমার ২নং ওয়ার্ড টিকে একটি মডেল ওয়ার্ডে রূপান্তরিত করব। যে সকল রাস্তাগুলোতে পানি ওঠে ওই রাস্তাগুলোকে উঁচু করে পিচ ঢালাই করার ব্যবস্থা নেব। আমি নির্বাচিত হবার পর মাদক, ইভটিজিং, কিশোর গ্যাং নির্মূলে সর্বসময় কাজ করেছি। নির্বাচিত হলে এ দিকে আরো বেশি সুনজর দেব। ইউনিয়ন পরিষদের বাজেট অনুযায়ী স্কুল-কলেজের উন্নয়ন সহ একটি পরিচ্ছন্ন ওয়ার্ড গড়ে তুলবো। আসন্ন নির্বাচনে আমি আমার ওয়ার্ড বাসীর কাছে জানাই আমার নির্বাচনী সালাম। আমি সকলের দোয়া প্রার্থী। ইনশাআল্লাহ জনগণের দোয়া ও ভালবাসায় আমি শতভাগ সুনিশ্চিত পুনরায় নির্বাচিত হবো ইনশাল্লাহ। 





নিউজ ডেস্ক : নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁয়ে শ্রী শ্রী গৌর নিতাই আখড়া মন্দিরে শারদীয় দূর্গা পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করেছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জায়েদুল আলম পিপিএম( বার)। 



এসময় তার সাথে আরও উপস্থিতি ছিলেন, সোনারগাঁ থানার অফিসার ইনচার্জ হাফিজুর রহমান,সোনারগাঁ থানার তদন্ত অফিসার শফিকুল ইসলাম, এস আই রাকিবসহ সোনারগাঁ পূজা উদৎযাপন কমিটির সভাপতি লোকনাথ দত্ত।



পরির্দশন শেষে পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম বলেন, হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধমীয় উৎসব শারদীয় দূর্গা পূজা এ উপলক্ষে সকলকে জানাই আন্তরিক শুভেচ্ছা। ধর্ম ধর্ম যার যার উৎসব সবার। বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের জন্য সরকারি বিধি নিদের্শনাগুলো মেনে প্রতিটি পূজা মন্ডপে পালন করা হচ্ছে শারদীয় উৎসব। পূজা উপলক্ষে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীরা পূজা মন্ডপ গুলোতে টহল দিচ্ছে ও সার্বিক নিরাপত্তার ব্যাবস্থা করা হয়েছে সেই সাথে সমাজ কে ইভটিজিং ও মাদক মুক্ত গড়ে তোলার জন্য প্রতিটি থানায় কাজ করে যাচ্ছে পুলিশ। তাই আপনারা পুলিশ কে সঠিক তথ্য দিয়ে সহায়তা করুন।



এর আগে নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ সভাপতি ও মোগড়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হাজী শাহ মোহাম্মদ সোহাগ রনির পক্ষ থেকে সজল চন্দ্রর নেতৃত্বে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম কে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন অভিরাজ সেন, অমিত রায়, সংকর রাজ, নারায়ণ কর্মকার, শ্যামল ঘোষ প্রমুখ।




নিউজ ডেস্ক  ঃ নারায়ণগঞ্জ বন্দর উপজেলা মদনপুর ইউনিয়ন জাতীয়  শ্রমিক লীগের ৫২ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী  উপলক্ষে  আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

১২ ই অক্টোবর মঙ্গলবার বাদ আসর মাগরিবের নামাজ  শেষে, কেওঢালা এলাকায়, জাতীয় শ্রমিক লীগের ৫২ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী  উপলক্ষে  আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। 

সিনিয়র সহ সভাপতি মদনপুর ইউনিয়ন জাতীয় শ্রমিক লীগ লিয়ন হোসাইন  এর সভাপতিত্বে, 

প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, মদনপুর ইউনিয়নের সুযোগ্য চেয়ারম্যান, আলহাজ্ব গাজী এম এ সালাম।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের সদস্য ও ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ্ব আলিনুর, মদনপুর ইউনিয়ন বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোঃ আক্তার হোসেন,  


প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন  মুজাম্মেল  হক,সভাপতি  জাতীয় শ্রমিক লীগ বন্দর উপজেলা। 

 উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন , রাফিয়ান আহম্মেদ সাধারন সম্পাদক জাতীয় শ্রমিক লীগ  বন্দর উপজেলা। 

 

 এসময় উপস্থিত ছিলেন,আলী হোসেন, সহ সভাপতি মদনপুর ইউপি জাতীয় শ্রমিক লীগ, 

 মোঃআল  মামুন  সাধারন সম্পাদক মদনপুর ইউনিয়ন  জাতীয় শ্রমিক লীগ, যুবলীগ নেতা  গাজী শাহআলম, জিহাদ ভুইয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক জাতীয় শ্রমিক লীগ, মদনপুর ইউনিয়ন, কামাল হোসেন,যুগ্ন সম্পাদক জাতীয় শ্রমিকলীগ,মদনপুর ইউপি,মোঃ জব্বার  যুগ্নসাধারণ সম্পাদক শ্রমিক লীগ মদনপুর ইউপি, 

 কার্যকরী সদস্য, মামুন সিকদার, আনোয়ার হোসেন, রুকন মিয়া, সোহেল রানা,লিল্প ও সাহিত্য বিষয়ক সম্পাদক, সেলিম শিল্প বিষয়ক সম্পাদক সহ আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

 

 




নিউজ  ডেস্ক  :- সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে আসন্ন মদনপুর ও ধামগড় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে নির্বাচনের সুযোগ পেলেন ২ প্রার্থী।


 শনিবার বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রধান কার্যালয় ধানমণ্ডির ৩২ এ বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের নীতি নির্ধারকদের বিবেচনার প্রেক্ষিতে পুনরায় তাদেরকে দলীয় প্রতীকে নির্বাচন করার এখতিয়ার প্রদান করেন।


এই দুই ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে পারিবারিক ভাবে আওয়ামীলীগের পরিচয়ে নৌকা প্রতীকে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিল।

স্থানীয় সাধারণ জনগণ মনে করেন

বন্দর উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা মদনপুর  ইউনিয়নের দুইবারের সফল চেয়ারম্যান গাজী এম এ সালাম ও ধামগড় ইউনিয়ন সুযোগ্য চেয়ারম্যান  আলহাজ্ব  মাসুম আহম্মেদ,  আওয়ামীলীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী দেয়ায় ২ টি ইউনিয়নের সাধারণ ভোটারদের মাঝে নির্বাচনী আমেজ অনেকটাই বেড়ে গেছে।


ধামগড় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মাসুম আহম্মেদ বলেন, নারায়ণগঞ্জের রাজনীতি বলতে ওসমান পরিবারকেই বুঝি। জাতির জনকের আদর্শে অনুপ্রানিত নারায়নগঞ্জের প্রত্যেকটি কর্মীই ওসমান পরিবার থেকে শক্তি, সাহস, অনুপ্রেরনায় চালিত। তার রাজনীতির বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ছাত্রলীগ দিয়ে রাজনীতির শুরু।

তারপর উপজেলা যুবলীগেরর রাজনীতি। নারায়নগঞ্জ -৪ আসনের প্রভাবশালী সাংসদ শামীম ওসমান, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল হাই, সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত শহিদ মোহাম্মদ বাদল ভাইয়ের রাজনীতি করি। তাই ধামগড় ইউনিয়নের সেবক হয়ে পুনরায়  আবার ও  জনগণের সেবক হতে চাই। 






নিউজডেস্ক : হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গোৎসব উপলক্ষে সোনারগাঁও উপজেলার মোগড়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হাজী শাহ মোঃ সোহাগ রনি হিন্দু সম্প্রদায়ের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন।


শনিবার সকালে মোগরাপাড়া ইউনিয়ন এর আওতায় ০৮টি পূজা মন্ডবের কমিটিকে খাদ্য সামগ্রী হিসাবে ৫০কেজি চালের বস্তা ও ২৫কেজি করে ডালের বস্তা সহ খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন চেয়ারম্যান প্রার্থী হাজী শাহ মোঃ সোহাগ রনি। এছাড়াও ৫০০ কেজি চিনিগুড়া পোলাও চাউল ও ২২৫ কেজি মুগডাল বিতরণ করেন।

হাজী শাহ্ মোঃ সোহাগ রনি।

এসময় মোগড়াপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী হাজী শাহ মোঃ সোহাগ রনি বলেন,আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ঘোষনা মতে ধর্ম যার যার উৎসব সবার।আমি মোগড়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে দলমত নির্বিশেষে সকল ধর্মের মানুষদের সহযোগিতা ও ভালোবাসায় এগিয়ে যেতে চাই।শারদীয় দুর্গোৎসবে আমার ইউনিয়নের হিন্দু সম্প্রদায়ের সাথে থাকতে পেরে আমি আনন্দিত। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের ধর্মনিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ বাংলাদেশ গড়ার লক্ষে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার জন্য আমি সর্বদা কাজ করে যাচ্ছি।




নিউজ ডেস্ক :নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমানের শশুর হাজী সাইফুদ্দিন আহম্মেদের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন সাবেক নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ও মোগরাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হাজী সোহাগ রনি।


শনিবার সকালে ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। দীর্ঘদিন ধরে তিনি অসুস্থ ছিলেন। মাঝে মধ্যে তিনি আমেরিকাতে চিকিৎসা নিয়েছেন।


বাদ আছর মাসদাইর কবরস্থানে মরহুমদের জানাযার নামাজ অনুষ্ঠিত হবে। পরে বন্দরের লক্ষণখোলায় দ্বিতীয় জানাযা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে মায়ের পাশে তাকে দাফন করা হবে।


মৃত্যুকালে তিনি দুই ছেলে ও দুই মেয়ে, নাতি নাতনিসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। মেয়ে সালমা ওসমান লিপি জেলা মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান ও ছেলে তানভীর আহমেদ টিটু বিসিবির পরিচালক।


সাবেক জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ও মোগরাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হাজী সোহাগ রনি বলেন, মরহুমের বিদায়ী আত্মার শান্তি কামনা করি। পাশাপাশি শোক সম্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি।


হাজী সোহাগ রনি বলেন, নারায়ণগঞ্জ- ৪ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এ কে এম শামীম ওসমান এর শ্বশুর নারায়ণগঞ্জের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী জনাব হাজ্বী সাইফুদ্দিন আহাম্মেদ ১২:৩০ এ ইন্তেকাল করেছেন। ইন্না-লিল্লাহি-ওয়া-ইন্না-ইলাইহি-রজিউন, আল্লাহ পাক তার পরিবারকে এই শোক কাটিয়ে উঠার তৌফিক দান করুন।এবং তার বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন আল্লাহ পাক তাকে জান্নাত বাসী করুন আমীন।




নিউজ ডেস্ক :বন্দর উপজেলা মদনপুর  ইউনিয়নে ৮ নং ওয়ার্ডে মেম্বার পদপ্রার্থী সফিকুল ইসলাম  সফিক এর উঠান বৈঠকে অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

আঃ আউয়াল মিয়া সভাপত্বিতে  প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন  নারায়নগঞ্জ জেলা ছাত্র সমাজ আহ্বায়ক,বন্দর উপজেলা মদনপুর  ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডের, মেম্বার পদপ্রার্থী শফিকুল ইসলাম শফিক। 


 বুধবার (০৬ অক্টোবর)  রাত ৭ ঘটিকায় মদনপুর ইউনিয়নের কেওঢালা মুসলিম পাড়া এলাকায় এ  উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।  উঠান বৈঠক কে শফিকুল ইসলাম  বলেন, বর্তমানের সরকার উন্নয়নের সরকার। মদনপুর ইউনিয়ন ৮ নং বাসীর দোয়া, সমর্থন কামনা করি এবং মেম্বার পদে নির্বাচিত হলে মদনপুর ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ড কে একটি মডেল ওয়ার্ড হিসেবে গড়ে তুলবো । 

 

একটি শোষনমুক্ত, দারিদ্র মুক্ত, মাদক মুক্ত, শিক্ষাবান্ধব এবং বৈষম্যহীন আদর্শ ওয়ার্ড  হিসাবে গড়ে তুলার নিমিত্তে আমি আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মেম্বার পদে প্রার্থী হ‌য়েছি। এর জন্য আমি আপনাদের সর্বসাধারণের দোয়া ও সমর্থন কামনা করছি।



এবং তি‌নি আ‌রো ব‌লেন, আপনাদের দোয়া ও সমর্থন পেলে আমি ন্যায়ের পক্ষে অবিচল থেকে গরীব, দুঃখী মেহনতি মানুষের সেবা ও এলাকার উন্নয়ন করে যাব ইনশাল্লাহ।

 সঞ্চালনায় ছিলেন, মোঃ জুয়েল ভূইয়া 

 এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, সোহরাবউদ্দিন ভূইয়া, আনোয়ার হোসেন, সালাম, আলিআক্কাস, নূর আলম, শাহআলম, জিহাদ ভূইয়া, আতাউল্লাহ, তোফাজ্জল, মুকবুল হোসেন,সাইদুল, সজিব,রুবেল রনি, হাবিবুর রহমান হাবিব, হাবিবুল্লাহ, মোঃ রুবেল সহ এলাকায় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।



                                                                             



নিউজ ডেস্ক : নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের জামপুর ইউনিয়নের মীরেরবাগ এলাকায় মৃত বাচ্চু মিয়ার ছেলে এতিম রাশেদুজ্জামান পলাশ ও পারভেজ মিয়ার জায়গা-জমি জোর পূর্বক দখলের চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে একই গ্রামের মৃত হোসেন আলীর ছেলে বিল্লালের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় পারভেজ মিয়া বাদী হয়ে সোনারগাঁও থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।  


উপজেলার জামপুর ইউনিয়নের মীরেরবাগ গ্রামের মৃত বাচ্চু মিয়ার ছেলে এতিম পারভেজ মিয়া বলেন, আমার বাবা গত প্রায় ৫বছর আগে মারা যান। ওই সময় আমার বড় ভাই রাশেদুজ্জামান পলাশ ও মাকে রেখে রেখে গেছেন। আমরা বিভিন্ন এলাকায় দিনমজুরের কাজ করে জীবন-যাপন করছি। মৃত্যুকালে বাবার রেখে যাওয়া ৪৫ শতাংশ জায়গায় দুই ভাই মিলে ও মাকে সঙ্গে নিয়ে বসবাস করে আসছি। 


গত কিছু দিন যাবত একই এলাকার জামপুর ইউনিয়ন বিএনপির তাঁতীদলের সাবেক সভাপতি ও বর্তমানে হাইব্রিড পদবিহীন আওয়ামীলীগ নেতা এলাকার প্রভাবশালী বিল্লাল হোসেনের ইন্ধনে মীরেরবাগ এলাকার মৃত কাদিরের ছেলে মো. হানিফ (৩০), তার স্ত্রী মোসা: আসমা বেগম (৫৫), তার দুই মেয়ে মোসা: রেহেনা (২৭) ও মোসা: ছালমা (২৬) সহ একই এলাকার মৃত হেকিমের ছেলে মোঃ বাবুলসহ (৪৫) অজ্ঞাত ১৫-২০জন সন্ত্রাসী নিয়ে আমাদের ভোগ দখলকৃত জায়গা দখল করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। 

এতিম পারভেজ মিয়াদের পরিবারের বাড়ি ঘরে আগুন জালিয়ে স্বপরিবারে পুড়িয়ে হত্যাসহ নানা ধরনের হুমকি দিচ্ছে। বিষয়টি প্রতিকারসহ জীবন রক্ষায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হস্তক্ষেপ কামনা করছেন অভিযোগকারী পারভেজ মিয়া।



এ ব্যাপারে বিল্লাল হোসেন মোবাইলে জানান আমি কারো জায়গা জোর পূর্বক দখল করতে যায়নি। তার বিরুদ্ধে আনিত সকল অভিযোগ মিথ্যা।

সোনারগাঁও থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ মো. হাফিজুর রহমান জানান, মীরেরবাগে ভিটেমাটি দখলের একটি অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত পূর্বক দোষীদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে।




নিউজ ডেস্ক : সোনারগাঁও কাচপুর ইউনিয়ন ৮নং ওয়ার্ড একতা যুবশক্তির উদ্যেগে প্রয়াত সাংসদ নাসিম ওসমান পত্নী পারভীন ওসমানের রোগমুক্তি কামনায় পবিত্র কোরআন খতম সহ এতিম ছাত্রদের নিয়ে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল ৪-১০-২০২১ ইং সোমবার বিকেল ৫ ঘটিকার সময় ললাটি ইয়াছিন হাফিজিয়া মাদ্রাসা ও এতিমখানা ভবনে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কাঁচপুর ইউনিয়ন পরিষদের ৮নং ওয়ার্ড আওয়ামিলীগ ও একতা যুবশক্তির সভাপতি জনাব মোঃ আলাউদ্দিন সর্দার,সাধারণ সম্পাদক রাশেদুল মামুন,সিনিয়র সহ-সভাপতি সানাউল্লাহ শাহ্, সহ-সভাপতি জয়নাল আবেদিন টুটুল,সাংগঠনিক সম্পাদক শামিম আহম্মেদ। নারায়নগঞ্জ জনতার জননী পারভীন ওসমান আম্মাজান দীর্ঘ এক সপ্তাহ যাবৎ ঠান্ডা জ্বর সহ বিভিন্ন রোগের অসুস্থতায় ভুগছেন। তার রোগমুক্তি ও সার্বিক সুস্থ্যতা কামনায় ললাটি একতা যুবশক্তির উদ্যেগে  মাদ্রাসার সকল শিক্ষক ও ছাত্রদের নিয়ে মিলাদ ও দোয়ার আয়োজন করা হয় । মিলাদ ও দোয়া পরিচালনা করেন মাদ্রাসার মুহতামিম মুফতি মাওলানা মোহাম্মদ এনামুল হক। অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন আব্দুর রশিদ শিকদার, আরিফ হোসেন, শামছুল মুন্সি,সিহাব, আমিনুল ইসলাম,রিফাত,হৃদয়, সিরাজুল ইসলাম( সিরা), হারুন অর রশিদ সহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ। পরে উপস্থিত সকলের মাঝে তবারক বিতরন করা হয়।




নিউজ ডেস্ক :  প্রতিটি মানুষের স্বপ্ন থাকে। কিন্তু স্বপ্নের পথে পা বাড়ালেই একের পর এক আসতে থাকে প্রতিবন্ধকতা। যে ব্যক্তি এসব প্রতিবন্ধকতা ডিঙিয়ে এগিয়ে যাবেন তিনিই হবেন সফল। আজ এমনই একজন সমাজ সেবক নিয়ে কথা বলব। যিনি অনেক বাধা ও প্রতিবন্ধকতা ডিঙিয়ে একজন সফল ব্যক্তি (চেয়ারম্যান) হিসেবে প্রতিষ্ঠিত।তিনি হলেন নারায়ণগঞ্জ জেলার বন্দর উপজেলা মদনপুর ইউনিয়নে সুযোগ্য ও সফল গরিবের বন্ধু একজন মানবতার  ফেরিওয়ালা,  চেয়ারম্যান, আলহাজ্ব গাজী এম এ সালাম । সাধারণ মানুষের প্রত্যাশা পূরণে নিরন্তর কাজ করে যাচ্ছেন। তারপরও মানুষের প্রত্যাশা থাকে। তিনি, তাঁর পরিশ্রম, সাহস, ইচ্ছাশক্তি, একাগ্রতা আর প্রতিভার সমন্বয়ে সাধারণ মানুষের ভাগ্য উন্নয়নের জন্য, স্থানীয় সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড সঠিক ও সুচারুভাবে বাস্তবায়নের জন্য, সর্বোপরি শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশের যে স্বপ্ন রয়েছে সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নের জন্য এবং  নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের জয়লাভের জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন,  তিনি হলেন,  আলহাজ্ব গাজী এম এ সালাম চেয়ারম্যান  ।  সকলের সহযোগিতা পাচ্ছেন এবং সহযোগিতার আশাও ব্যক্ত করে চলেছেন। চেয়ারম্যান হিসেবে সফলতা পাওয়ায় তিনি  বন্দর উপজেলায় মদনপুর  ইউনিয়ন  সর্বত্র সম্মানিত হয়েছেন। তারুণ্যের প্রতীক এ ব্যক্তি তাঁর বয়স ও অভিজ্ঞতা দুটিকেই হার মানিয়েছেন। তাঁর কর্মকান্ডে মনে হয় তিনি নবীন নয়। তিনি অনেক প্রবীণ। তার অভিজ্ঞতা রয়েছে অনেক। এসকল সফল মানুষের পেছনে আছে কিছু গল্প, তা অনেকটা রূপকথার মতো। আর সে সব গল্প থেকে মানুষ খুঁজে নেয় স্বপ্ন দেখার সম্বল, এগিয়ে যাওয়ার জন্য নতুন প্রেরণা।দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই উল্লেখযোগ্য উন্নয়নে অগ্রণী ভূমিকা রেখে সাধারণ মানুষের আস্থা অর্জনে সক্ষম হয়েছেন। এলাকার হতদরিদ্র মানুষের উন্নয়নে তাঁর নিরন্তর প্রয়াস সব মহলেই প্রশংসা কুঁড়িয়েছে। যেমন রাস্তা ঘাটের উন্নয়ন, মসজিদ মাদ্রাসা  অনুধান, খেলাধুলা, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য সেবায় বিশেষ অবদান, সামাজিক উন্নয়নসহ বিভিন্ন প্রকল্পের বাস্তবায়নে দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিয়ে এলাকায় নিজের মুখ উজ্জ্বল করেছেন। তার সাথে দলের ভাবমূর্তির উন্নয়ন হয়েছে। অসংখ্য মসজিদ, মাদ্রাসা, স্কুল-কলেজ ও বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠণের অন্যতম পৃষ্ঠপোষক সমাজসেবী গাজী এম এ সালাম চেয়ারম্যান  । ব্যক্তি জীবনে তিনি অত্যন্ত নম্র, ভদ্র, সদাহাস্যোজ্জ্বল ও সাদা মনের মানুষ। তাঁর মাঝে কোন অহংকার নেই। নিরহংকারী এই মানুষটি দলমত নির্বিশেষে , সকলের কাছে প্রিয়।কাজ করছেন নৌকার জন্য। সর্বোপরি কাজ করছেন সাধারণ মানুষের কল্যাণের জন্য। বয়সে তরুন হলেও তিনি মনোবল হারাননি। এই সফল মানুষটি দলীয় নেতাকর্মী থেকে শুরু করে প্রতিটি মানুষের বিপদ আপদে ছুটে যান। এলাকায় তিনি একজন সাদা মনের উদার মানসিকতার ও দানশীল মানুষ হিসেবে ইতিমধ্যে পরিচিতি লাভ করেছেন। এলাকার সাধারণ মানুষের মতে, আমরা নেতা বা চেয়ারম্যান বুঝিনা।গাজী  এম এ সালাম চেয়ারম্যান  একজন ভাল মানুষ। তিনি একজন কর্মঠ ব্যক্তি। তিনি আবারও চেয়ারম্যান পদে থাকলে আমাদের তথা এলাকার উপকার হবে। আমাদের দু:খ দুর্দশায় তাঁকে সহজেই পাশে পাওয়া যায়।ইতোমধ্যে তিনি সমাজের সকল মতাদর্শের মানুষের কাছে একজন দক্ষ, পরিশ্রমী ও মেধাবী সমাজ সেবক এবং উদীয়মান নেতা হিসাবে ব্যাপক পরিচিতি লাভ করেছেন। নির্বাচনকালীন সময়ে সাধারণ জনগনকে দেওয়া প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করে একজন সফল ও জনপ্রিয় ইউপি চেয়ারম্যান হিসেবে সবশ্রেনীর মানুষের অন্তরে স্থান করে নিয়েছেন বন্দর উপজেলা মদনপুর ইউনিয়নের জনপ্রিয় চেয়ারম্যান গাজী এম এ সালাম।  তিনি মদনপুর  ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর মাত্র কিছু দিনের মাথায় তার প্রিয় ইউনিয়নকে উন্নয়নের মাষ্টার প্লানের আওতায় এনে ব্যাপক উন্নয়ন করেছে তাই আজ মদনপুর ইউনিয়ন উন্নয়নের জোয়ারে ভাসছে, মেধা,মনন, কর্ম প্রয়াস শ্রম ও অধ্যাবশায়ের মাধ্যমে ব্যবস্থাপনাগত দক্ষতা অর্জনের মধ্য দিয়ে তিনি নিজেকে গড়েছেন পরিশীলিতভাবে এক উজ্জ্বল অধ্যায়ে। এলাকার গরীব দুঃখী মানুষের পাশে থেকে তিনি সব সময় সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। তাই জনদরদী হিসেবে তিনি এলাকায় ব্যাপক পরিচিত ও জনপ্রিয়তা লাভ করেছেন। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, তিনি মদনপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে এলাকার ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন, এবং একের পর এক উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করে যাচ্ছেন। এলাকা পরিদর্শনকালে মদনপুর ইউনিয়নবাসী এ প্রতিবেদককে বলেন, মদনপুর ইউনিয়নের বর্তমান জনপ্রিয় চেয়ারম্যান গাজী এম এ সালাম।  পারিবারিক ঐতিহ্য অনুযায়ী ছোট বেলা থেকেই একজন সহজ-সরল-সৎ মনের অধিকারী দানশীল ও মেধাবী মানুষ। যার ফলে এলাকাবাসী তাকে মদনপুর ইউনিয়নে বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত করেছেন। চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে  গাজী এম এ সালাম মদনপুর ইউনিয়নের উন্নয়ন করে যাচ্ছেন একাধারে ইতি মধ্যে পাঁচ বছরে তিনি ব্যাপক উন্নয়ন করছেন   সামাজিক সচেতনতা এবং মানবিক সেবার অনন্য উদ্যোগ তাকে একজন মানবিকও মহতী মানুষের উচ্চতায় অধিষ্ঠিত করেছে। তিনি এলাকার দরিদ্র জনগোষ্টির উন্নয়নে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছেন । তিনি এ পর্যন্ত ইউনিয়নের বিভিন্ন রাস্তার উন্নয়নসহ স্কুল,মাদ্রাসা,কবরস্থান,মসজিদ,ঈদগাঁমাঠ সংস্কার করে গরীব দু:খী মানুষের মাঝে বয়স্কভাতা,বিধবাভাতা সঠিকভাবে বিতরণ করেছেন এবং বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প সঠিকভাবে বাস্তবায়ন করে গ্রাম্য শালিসের মাধ্যমে ইউনিয়নের বিভিন্ন সমস্যার সমাধান করে যাচ্ছেন। এছাড়াও তিনি নির্বাচিত হওয়ার পর নিয়মিত অফিস করছেন এবং স্থানীয় প্রশাসনের সার্বিক তত্বাবদানে প্রতিটি উন্নয়নমূলক কাজ অতি দক্ষতার সাথে সফলভাবে করেছেন যা এখনও চলমান আছে। আগামী দিনে মদনপুর ইউপি চেয়ারম্যান গাজী এম এ সালাম   সততা ও কর্মদক্ষতার সাথে ইউনিয়নে উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় অগ্রণী ভূমিকা পালন করে ইউনিয়নকে আধুনিক মডেল হিসেবে গড়ে তুলবেন এমনটাই প্রত্যাশা ইউনিয়নবাসীসহ সকলের।তাই আবারও উন্নয়ন আবারও গাজী এম এ সালাম । 







নিউজ ডেস্ক : মানহানির অভিযোগে এক মামলায় বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকার সোনারগাঁও প্রতিনিধি আল আমিনকে তিন মাসের কারাদন্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে আদালত। আজ সোমবার নারায়ণগঞ্জ জেলা জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট দ্বিতীয় আদালতের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কাউসার আলম এ রায় দেন। এসময় আসামি আল আমিন অনুপস্থিত ছিলেন।

মামলার বাদী সাবেক পৌর কাউন্সিলর সালমা আক্তার জানান, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে সামাজিক ও অর্থনৈতিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ করার হীনমানসে আসামী আল আমিন তার ও তার পরিবারের সদস্য এবং স্বজনদের জড়িয়ে ‘‘৮০ লাখ টাকা নিয়ে উধাও’’ শিরোনামে দৈনিক বাংলাদেশ পত্রিকায় ২০১৭ সালের ১৭ জানুয়ারি একটি মিথ্যা সংবাদ পরিবেশন করেন। পরবর্তীতে বিষয়টি তার দৃষ্টিগোচর হয়। পরে তিনি ২০১৭ সালের ২৯ মার্চ আদালতে মানহানির মামলা দায়ের করেন।

শেষ পর্যন্ত মামলায় তিনি বিজ্ঞ আদালতের রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করে বলেন, আমার ভাগিনাও একজন সংবাদ কর্মী। তারা বাবা-মার নামও ওই মিথ্যা সংবাদে জড়ানো হয়েছে। আদালতের ন্যায় বিচার পেয়ে সাংবাদিক ভাগিনাও সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।




নিউজ ডেস্ক ঃ আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সাধারণ মানুষের সমর্থন ও দোয়া প্রার্থনা করেছেন, বন্দর উপজেলা মদনপুর  ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডের, মেম্বার পদপ্রার্থী  নারায়নগঞ্জ জেলা ছাত্র সমাজ আহ্বায়ক, বিশিষ্ট সমাজসেবক ও ব্যবসায়ী শফিকুল ইসলাম শফিক সকলের কাছে দোয়া ও প্রার্থনা করেছেন। 

নিজের প্রার্থিতা জানান দিয়ে তিনি মদনপুর  ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের সাধারণ মানুষের সমর্থন ও দোয়া প্রার্থনা করছেন।


আসন্ন ইউপি নির্বাচনে বন্দর উপজেলার মদনপুর  ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডের মেম্বার পদে সম্ভাব্য প্রার্থী শফিকুল ইসলাম শফিক জানান, তিনি আগামী আসন্ন ইউপি নির্বাচনে জয়যুক্ত হয়ে এলাকার অবহেলিত মানুষের সেবা করতে চান। ইউপি নির্বাচনে মেম্বার প্রার্থী হিসেবে নিজের অবস্থান আরো সুসংহত করতে প্রতিনিয়ত মদনপুর  ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের প্রতিটি গ্রামের মোড়ে, চায়ের দোকান, বিভিন্ন রাস্তাঘাট,পাড়া মহল্লায় ও সাধারণ মানুষের ঘরে ঘরে ছুটে যাচ্ছেন ও দিনরাত ভোটারদের সাথে মতবিনিময় করছেন।


এরই মধ্যে তিনি এলাকার সকলের সাথে কুশল বিনিময় ও নানান সমস্যা নিয়ে তরুনদের সাথে মতবিনিময় করেছেন।


ই‌তিম‌ধ্যে তি‌নি গ্রাম‌কে ঢে‌লে সাজা‌নোর পরিকল্পনাও  ক‌রেছেন গ্রা‌মের মুর‌ব্বি, শিক্ষিত ও তরুণ সমাজ‌দের সমন্ব‌য়ে।

একান্ত সাক্ষা‌তে তি‌নি জানান মদনপুর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড কে ঢেলে সাজানোর লক্ষ্যকে সামনে নিয়ে  একটি শোষনমুক্ত, দারিদ্র মুক্ত, মাদক মুক্ত, শিক্ষাবান্ধব এবং বৈষম্যহীন আদর্শ গ্রাম হিসাবে গড়ে তুলার নিমিত্তে আমি আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মেম্বার পদে প্রার্থী হ‌চ্ছি। এর জন্য আমি আমার গ্রামের মুরব্বী, ভাই,বোন,বন্ধু,চাচী খালাসহ সর্বসাধারণের দোয়া ও সমর্থন কামনা করছি।



এবং তি‌নি আ‌রো ব‌লেন, আপনাদের দোয়া ও সমর্থন পেলে আমি ন্যায়ের পক্ষে অবিচল থেকে গরীব, দুঃখী মেহনতি মানুষের সেবা ও এলাকার উন্নয়ন করে যাব ইনশাল্লাহ।




নিউজ ডেস্ক : নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব এ্যাডভোকেট আবু হাসনাত মোঃ শহিদ বাদল (ভিপি বাদল) এর সুস্থতা কামনা করে সর্বস্তরের সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন। বন্দর  উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা, বিশিষ্ট সমাজসেবক ও ব্যবসায়ী মোঃ জুয়েল ভুঁইয়া।


জুয়েল ভুঁইয়া জানান, ‘আমাদের শ্রদ্ধেয় ও প্রিয় নেতা ভিপি বাদল ভাই,করোনাকালীন সময়ে বাদল ভাই করোনার ভয়ে ভীত হয়ে ঘরে বসে থাকেন নি। জেলার বিভিন্ন প্রান্তে অসহায় ও কর্মহীন মানুষের মাঝে নিজ অর্থায়ণে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেছেন। তিনি নিজে করোনায় আক্রান্ত হবার পরেও তিনি থেমে যাননি। তাছাড়া স্বাস্থ্যবিধি মেনে যার যার সাধ্যমত খাদ্যসামগ্রী নিয়ে অসহায় মানুষের পাশে দাড়াতে দলীয় নেতা-কর্মীদের উৎসাহ দিয়েছেন। জেলা আওয়ামী লীগকে ঐক্যবদ্ধ রাখা সহ জেলার আওতাধীন প্রতিটি উপজেলা আওয়ামী লীগকে সাংগঠনিকভাবে শক্তিশালী করতে বিশেষ করে তৃণমূল আওয়ামী লীগকে সংগঠিত করতে তিনি কাজ করে যাচ্ছেন। দলীয় সকল কর্মসূচি পালন সহ দলীয় নির্দেশনা মোতাবেক মা, মাটি ও মানুষের সেবায় নিজেকে আত্মনিয়োগ রেখেছেন।


সর্বোপরি দলীয় ভাবমূর্তি অক্ষুন্ন রাখা সহ আওয়ামী লীগের প্রতি নেতা-কর্মী তথা জনসাধারণের যাতে আস্থা বৃদ্ধি পায় সে কার্যক্রম তিনি চালিয়ে যাচ্ছেন। আমরা তার সর্বাঙ্গিন সফলতা কামনা করছি এবং তিনি যাতে দ্রুত সুস্থ হয়ে আবারো গণমানুষের কল্যাণে কাজ করতে পারেন সেই দোয়া করছি’।




নিউজ ডেস্ক  শপথ গ্রহন করেছেন বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় নির্বাচিত সোনারগাঁ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডভোকেট সামসুল ইসলাম ভুইয়া। রবিবার সকালে ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ে এ শপথ পাঠ করান বিভাগীর কমিশনার খুলিলুল রহমান।


উল্লেখ্য, গত ২২ জুলাই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেনের মৃত্যুর পর এ আসনটি শুন্য ঘোষনা করে ১৩ সেপ্টম্বর তফসিল ঘোষনা করেন নির্বাচন কমিশন। উপ-নির্বাচন উপলক্ষে সোনারগাঁয়ের ৮ জন আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন। এরপর দলীয় নৌকা প্রতীক দেয়া হয় এডভোকেট সামসুল ইসলাম ভুইয়াকে।


শপথ গ্রহনের পর নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি ও মোগরাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী হাজী সোহাগ রনি তাকে ফুলের তোড়া দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।




নিউজ ডেস্ক :সোনারগাঁ উপজেলা মোগরাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী সোহাগ রনি উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

হাজী গোলাম মাওলা সভাপত্বিতে  প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সোনারগাঁ উপজেলা কৃষকলীগের সাবেক সভাপতি শাহ জামাল তোতা। নৌকা প্রতিকের পক্ষে ভোট চেয়ে শত শত নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে গণসংযোগ করেছেন। শনিবার(০২ অক্টোবর) বিকেলে মোগরাপাড়া ইউনিয়নের কালা দরগাহ্ ও উলুকান্দা এলাকায় এ গণসংযোগ করেছেন। গণসংযোগকালে নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি সোহাগ রনি বলেন, বর্তমানের সরকার উন্নয়নের সরকার। মোগরাপাড়া ইউনিয়নবাসীদের দোয়া, সমর্থন এবং নৌকা প্রতীকে মনোনীত হলে মোগরাপাড়া ইউনিয়নকে একটি মডেল ইউনিয়নে গড়ে তুলবো ।


পাশাপাশি মোগরাপাড়া ইউনিয়ন থেকে মাদক নির্মূল করবো। তিনি আরও বলেন, বর্তমান সরকারের উন্নয়নের ধারাবাহিকতাকে অব্যাহত রাখতে সবাইকে নৌকা প্রতীকে ভোট দেয়ার আহ্বান জানান এবং তিনি যাতে নৌকা প্রতীকে মনোনীত হন সে জন্য সবার দোয়া প্রার্থনা করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন,সামসুউদ্দীন প্রধান, ডাঃআজিজ,সাহাবুউদ্দীন, মাইন, শহিদুল্লাহ, আলমগীর,হাজী জব্বার, গিয়াসউদ্দিন ভান্ডারী,শাহিন রেজা,আহমেদ হোসেন,নুর মোহাম্মদ, মীম মোহাম্মদ, মোজাম্মেল, সৌরভ,রাসেল,এখলাস বাবুল, রনি, ছাত্রলীগ নেতা ওয়ালিদ সরকার, সজল সহ এলাকায় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।





নিউজ ডেস্ক ঃ আগামী আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সাধারণ মানুষের সমর্থন ও দোয়া প্রার্থনা করেছেন  ধামগড় ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের, বিশিষ্ট সমাজসেবক, ব্যবসায়ী ও মেম্বার পদপ্রার্থী আল মজিবুর রহমান। 


নিজের প্রার্থিতা জানান দিয়ে তিনি ধামগড় ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের সাধারণ জনগনের  সমর্থন ও দোয়া প্রার্থনা করছেন।


আসন্ন ইউপি নির্বাচনে বন্দর উপজেলার ধামগড় ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ড মেম্বার পদে সম্ভাব্য প্রার্থী আল মজিবুর রহমান জানান, তিনি আগামী আসন্ন ইউপি নির্বাচনে জয়যুক্ত হয়ে এলাকার অবহেলিত মানুষের সেবা করতে চান। ইউপি নির্বাচনে মেম্বার প্রার্থী হিসেবে নিজের অবস্থান আরো সুসংহত করতে প্রতিনিয়ত ধামগড় ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের প্রতিটি গ্রামের মোড়ে, চায়ের দোকান, বিভিন্ন রাস্তাঘাট,পাড়া মহল্লায় ও সাধারণ মানুষের ঘরে ঘরে ছুটে যাচ্ছেন ও দিনরাত ভোটারদের সাথে মতবিনিময় করছেন।


এরই মধ্যে তিনি এলাকার সকলের সাথে কুশল বিনিময় ও নানান সমস্যা নিয়ে তরুনদের সাথে মতবিনিময় করছেন।



ই‌তিম‌ধ্যে তি‌নি গ্রাম‌কে ঢে‌লে সাজা‌নোর পরিকল্পনাও  ক‌রেছেন গ্রা‌মের মুর‌ব্বি, শিক্ষিত ও তরুণ সমাজ‌দের সমন্ব‌য়ে।

একান্ত সাক্ষা‌তে তি‌নি জানান ধামগড় ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ড কে ঢেলে সাজানোর লক্ষ্যকে সামনে নিয়ে  একটি শোষনমুক্ত, দারিদ্র মুক্ত, শিক্ষাবান্ধব এবং বৈষম্যহীন আদর্শ গ্রাম হিসাবে গড়ে তুলার নিমিত্তে আমি আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মেম্বার পদে প্রার্থী হ‌চ্ছি। এর জন্য আমি আমার গ্রামের মুরব্বী, ভাই,বোন,বন্ধু,চাচী খালাসহ সর্বসাধারণের দোয়া ও সমর্থন কামনা করছি।


 



নিউজ ডেস্ক  :- নারায়ণগঞ্জ বন্দর উপজেলা প্রশাসনের উদ্যেগে শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন পালন  উপলক্ষে বৃক্ষ রোপন কর্মসূচী ও উঠান বৈঠক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রনালয় জাতীয় মহিলা সংস্থা তথ্য আপাঃ- ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে তথ্য সেবা প্রযুক্তির মাধ্যমে মহিলাদের ক্ষমতায়ন প্রকল্প-২ এক উঠান বৈঠক ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। ৩০শে সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার বন্দর উপজেলা ধামগড় ইউপি জাঙ্গাল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে জাতীয় মহিলা তথ্য প্রযুক্তি সেবা। এতে বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব আজিজুল হক আজিজ এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সদ্য নিয়োগপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী অফিসার বি,এম,কুদরত-এ-খুদা। বিশেষ অতিথি মোঃ সোহাগ হোসেন-,উপজেলা শিক্ষা অফিসার, তাসলিমা সুলতানা স্বপ্না-সহকারী শিক্ষা অফিসার,মোসাম্মৎ সালমা আক্তার উপজেলা তথ্য অফিসার, ধামগড় ইউপি ২নং ওয়ার্ড ফয়েজুর রহনান ফয়েজ মোল্লা,শাহিদা আক্তার-ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক, মোঃ দেলোয়ার হোসেন, শাহানাজ পারভীন,কাজী শাহিন,তাসলিমা আক্তার ও সোহেল মিয়া সহকারী শিক্ষক সহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ।


 


 

নিউজ ডেস্ক : সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য, বারদী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও নৌকার মনোনীত ইউপি চেয়ারম্যান জহিরুল হকের নিজস্ব অর্থায়নে করোনা মহামারীর শুরুতেই অসহায় ও গরীব রোগীদের ফ্রি অক্সিজেন সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। বৃহস্পতিবার পরিষদ কার্যালয়ে গিয়ে দেখা যায় ইসমাঈল (৭৫) নামের এক বৃদ্ধাকে ডাক্তার দিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে অক্সিজেন দিয়ে সেবা দিচ্ছে এমন দৃশ্য চোখে পড়ে।


জানা যায়, উপজেলার বারদী ইউনিয়ন পরিষদের আওয়ামীলীগের নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান জহিরুল হক প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার নির্দেশে করোনা মহামারীর শুরু থেকে অসহায়-গরীব রোগীদের বিনামূল্য ওষধ ও ফ্রি অক্সিজেন সেবা দিয়ে মানবিক দৃষ্ট্রান্ত স্থাপন করেছেন। বর্তমানেও ওসব সেবা পাচ্ছেন বলে জানান বারদী বাসী।


জহিরুল হক বলেন, করোনা মহামারীতে শুধু নয় সব সময় অসহায় ও গরীব মানুষের পাশে থেকে সহযোগীতা করেছি। যতদিন বেচেঁ থাকি তত দিন তাদের পাশে থেকে সেবা দিয়ে যাবো।

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget